× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৭ নভেম্বর ২০২০, শুক্রবার

গফরগাঁওয়ে রেলকর্মচারীদের মানববন্ধন

বাংলারজমিন

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি | ২১ অক্টোবর ২০২০, বুধবার, ৮:৪৫

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে রেলওয়ে প্রকৌশল বিভাগের এক নারী কর্মচারীকে রেললাইনে কাজ করার সময় পৌরসভার সাবেক মেয়র কায়সার আহম্মেদের বাড়ির কেয়ার টেকারের কুপ্রস্তাব দেয়া ও শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে এবং অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে রেল বিভাগের কর্মচারীরা। মঙ্গলবার সকালে গফরগাঁও রেলওয়ে স্টেশন চত্বরে রেলওয়ে শ্রমিক কর্মচারীবৃন্দের ব্যানারে এই মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে রেলওয়ে প্রকৌশল বিভাগের ওয়েম্যান, গেইটম্যান, টাইম কিপারসহ দেড় শতাধিক কর্মচারী অংশ নেয়। এ ছাড়াও উপজেলায় বিভিন্ন পেশায় কর্মরত আরও শতাধিক কর্মজীবী নারী মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করে। সকাল ১০ টা থেকে সকাল ১১টা পর্যন্ত ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন চলাকালে তাদের দাবির প্রতি সমর্থন জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, রেলওয়ে প্রকৌশল বিভাগের ওয়েম্যান কালাম, মো. বাবুল হোসেন, সনি আক্তার পুতুল, সাহিদা আক্তার, গেইট কিপার বেলাল হোসেন, মো. নুরুন্নবী, টাইম কিপার রাসেল মিয়া, কর্মজীবী নারী মল্লিকা বেগম প্রমুখ।
এ ব্যাপারে গফরগাঁও রেলওয়ে পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ শহিদুল্লাহ হিরু জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে এবং আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
উল্লেখ্য, গত ১৭ই অক্টোবর শনিবার দুপুর দুপুর দেড়টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ রেলপথের ধামাইল এলাকায় সাবেক পৌর মেয়র যুবলীগ নেতা এডভোকেট কায়সার আহম্মেদের বাড়ির সামনে রেললাইনের ওভারহোলিং এর কাজ করছিল রেলওয়ের প্রকৌশল শাখার দুইজন নারী কর্মচারীসহ ৪/৫ জন কর্মচারী। এ সময় সাবেক মেয়রের বাড়ির কেয়ার টেকার লিটন ওরফে বাশু লিটন (৪৮) সহ অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জন ব্যক্তি এই দুই নারী কর্মচারীকে অশ্লীল কথাবার্তা বলে উত্ত্যক্ত করতে থাকে এবং কুপ্রস্তাব দেয়। কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বাশু লিটন ও তার সহযোগীরা ওয়েম্যান আকলিমা বেগম (২৮)কে আটকিয়ে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে।
এ ঘটনা দেখতে পেয়ে এলাকাবাসী এগিয়ে এলে বাশু লিটন ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর