× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৪ নভেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার

প্রতারকের বাড়ির সামনে পরিবারের আমরণ অনশন

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার থেকে | ২১ অক্টোবর ২০২০, বুধবার, ৮:৪৯

টাকা উদ্ধারে ব্যর্থ হয়ে এমন অভিনব প্রতিবাদ এক ব্যবসায়ী পরিবারের। পরিবারের সদস্যদের  নিয়ে ওই ব্যবসায়ী আমরণ অনশন করছেন। এমন ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে অল্প সময়ের মধ্যেই ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন ওই উপজেলার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। তারা এমন প্রতারণার প্রতিবাদ জানিয়ে তাদের সঙ্গে একাত্মতা পোষণ করেন। জানা যায় জেলার কুলাউড়া উপজেলায় এক প্রতারকরে খপ্পরে পড়ে সর্বস্ব হারান এক তরুণ ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলাম রিয়াদ। ১৯শে অক্টোবর সকাল থেকে অনশন শুরু করেন ব্যবসায়ী পরিবার। প্রতারণার শিকার ওই ব্যবসায়ী সপরিবারে প্রতারকের বাসার প্রধান ফটকে শুরু করেন আমরণ অনশন। আমরণ অনশনকারী ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলাম রিয়াদ জানান বাসা করার জন্য  ৫ শতক জমি  ক্রয় করতে পৌর এলাকার ইসলামবাগ আবাসিক এলাকার বাসিন্দা ছাব্বির জামিল ও এমদাদ হককে কয়েক কিস্তিতে মোট ২৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা দেন।
আমিনুল ইসলাম রিয়াদ একজন বিকাশ এজেন্ট ব্যবসায়ী। যে টাকা তিনি ছাব্বির জামিলকে দিয়েছেন সেই টাকাগুলো তার জমানো ও পৈতৃক সম্পত্তি বিক্রির। আমিনুল জানান, টাকা দেয়ার ৮ মাস অতিবাহিত হলেও ছাব্বির জামিল জমি রেজিস্ট্রি করে না দিয়ে উল্টো হুমকি-ধমকি দিচ্ছে। বিষয়টির কোনো সুরাহা করতে না পেরে প্রাপ্য অর্থ ফেরত ও ন্যায় বিচারের দাবিতে ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলাম রিয়াদ, তার মা রওশন আরা বেগম ও বোন ব্যাংক কর্মচারী দিলারা বেগমকে নিয়ে সোমবার সকাল ১০ টা থেকে আমরণ অনশন শুরু করেন। পরে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের প্রচেষ্টা ও আশ্বাসে আমরণ অনশন  সাময়িক গুটিয়ে নেন। ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলাম রিয়াদ গণমাধ্যম কর্মীদের জানান টাকা ফেরত ও ন্যায় বিচার না পেলে তিনি পুনরায় আমরণ অনশন করবেন। অভিযুক্ত এমদাদ হক গণমাধ্যম কর্মীদের জানান টাকা নেয়ার সঙ্গে আমাকে কেন জড়ানো হচ্ছে জানি না। আমি কোনো টাকা নেইনি। ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলাম রিয়াদ জমি কেনার জন্য ছাব্বির জামিলকে টাকা দিয়েছেন তা আমি জানি। প্রয়োজনে আদালতে গিয়েও বলবো। তবে টাকার পরিমাণ আরো কম। অভিযুক্ত ছাব্বির জামিল গণমাধ্যম কর্মীদের জানান টাকা দেয়ার ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা। সে তার বাবার চিকিৎসার জন্য উল্টো দেড় লাখ টাকা নিয়েছে। এখন আমার বাসার সামনে বসে অনশন নাটক করছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর