× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৪ নভেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার

রানা-জিকুদের দায়িত্বে চেলসির কোচ

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২৪ অক্টোবর ২০২০, শনিবার, ৮:২৫

ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে চেলসি, টটেনহ্যাম ও ক্রিস্টাল প্যালেসের মতো বড় দলে গোলরক্ষক হিসেবে কাজ করেছেন লেস ক্লিভলি। নভেম্বরে ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ আর বিশ্বকাপ বাছাই সামনে রেখে তাকে গোলরক্ষক কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। আগামী ১৩ ও ১৭ই নভেম্বর নেপালের সঙ্গে দুটো ফিফা আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। তার আগেই এই ইংলিশ কোচকে দলে পাচ্ছেন আশরাফুল রানা-জিকোরা। ক্লিভলি ছাড়াও জাতীয় দলের জন্য ফিটনেস কোচ হিসেবে ইভান রাজলক ও ফুটবলারদের পারফরম্যান্স বিশ্লেষক হিসেবে ক্রেইগ ডানকানকে চূড়ান্ত করেছে দেশের সর্বোচ্চ ফুটবল সংস্থা। ডানকান এর আগে এএফসি চ্যাম্পিয়নস লীগ জয়ী সিডনি ওয়ান্ডারার্স ও এশিয়ান কাপজয়ী অস্ট্রেলিয়া দলের সঙ্গে কাজ করেছেন।
এর আগে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে কাজের অভিজ্ঞতা থাকা ববি মিমস লাল-সবুজদের গোলরক্ষক কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ভারতীয় ক্লাব ইস্ট বেঙ্গলের সঙ্গে চুক্তি করায় তার জায়গায় লেস ক্লিভলিকে নিয়োগ দিয়েছে বাফুফে। লেস ক্লিভলির ক্যারিয়ারটা বেশ ভারী।
ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে চেলসি, টটেনহ্যাম ও ক্রিস্টাল প্যালেসের মতো বড় দলে গোলরক্ষক কোচ হিসেবে কাজ করেছেন তিনি। খেলোয়াড় জীবনে গোলরক্ষক ছিলেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের আরেক দল সাউদাম্পটন এফসিতে। চেলসি-আর্সেনালের সাবেক ফুটবলার পিওতর চেকের মতো কিংবদন্তি গোলরক্ষকদের সঙ্গে কাজ করেছেন লেস ক্লিভলি। সব ঠিক থাকলে ২৯শে অক্টোবর জাতীয় দলের ক্যাম্পে যোগ দেবেন তিনি। ওই দিনই ঢাকায় আসার কথা বাংলাদেশ দলের হেড কোচ জেমি ডে ও তার সহকারী স্টুয়ার্ট ওয়াটকিসের। যদিও জেমি ডে ঢাকা আসার আগে গতকাল সহকারী কোচ মাসুদ পারভেজ কায়সারের কাছে জামাল ও ভূঁইয়া ও তারিক কাজী এবং বসুন্ধরা কিংসের ১৪ ফুটবলার ছাড়া বাকি খেলোয়াড়রা রাজধানীর ফারস হোটেলে রিপোর্ট করেছেন। ২৯শে অক্টোবর ক্যাম্পে যোগ দিবেন এই দুই প্রবাসী ফুটবলার। হেড কোচ জেমি ডে ফিরলে ক্যাম্পে যোগ দেবেন বসুন্ধরা কিংসের ফুটবলাররা। ফারস হোটেল থেকেই বাংলাদেশ দল অনুশীলন করবে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে এবং কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মুস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে। নেপাল ফুটবল দল অনুশীলন করবে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব মাঠ ও কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মুস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে। ২৯শে অক্টোবর ঢাকায় এসে কোয়ারেন্টাইন শেষে দলের অনুশীলনে যোগ দেবেন জেমি ডে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর