× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৫ ডিসেম্বর ২০২০, শনিবার

সমালোচকদের একহাত জিদানের

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৫ অক্টোবর ২০২০, রবিবার

ইতিহাসের প্রথম দর্শকশূন্য এল ক্লাসিকোয় ঘরের মাঠে হেরেছে বার্সেলোনা। রিয়াল মাদ্রিদের কাছে শনিবার ৩-১ গোলে হারের পর কাতালানদের কাঠগড়ায় ভিএআর। অবশ্য সেসব গা-সওয়া হয়ে গেছে রিয়াল মাদ্রিদের। গত মৌসুমের শেষটা রিয়ালের কেটেছে ভিএআর সম্পর্কিত নানা ঘটনা নিয়ে। চলতি মৌসুমের শুরুতেও যা চলমান। গত ২৭শে সেপ্টেম্বর রিয়াল বেতিসের বিপক্ষে ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টি পেয়ে পিছিয়ে পড়েও ৩-২ ব্যবধানে জয় পায় রিয়াল মাদ্রিদ। সেদিন ভিএআর নিয়ে ক্ষোভ দেখান বেতিস কোচ মানুয়েল পেল্লেগ্রিনি। শনিবার এল ক্লাসিকোয় বার্সেলোনার বিপক্ষে ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ভিএআর দেখে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন রেফারি।
বার্সোলানা কোচ, খেলোয়াড়রা মেনে নিতে পারেননি রেফারির এমন সিদ্বান্ত। রিয়ালের অবশ্য সেসব নিয়ে ভাবনা নেই। দলটির কোচ জিনেদিন জিদান জানালেন, জয়টা উদযাপনে মনযোগী তার দল। ধুয়ে দিয়েছেন সমালোচকদেরও।

আরো পড়ুন:রিয়ালের কাছে হারের পর বার্সেলোনার কাঠগড়ায় ভিএআর

সমতায় থাকার সময় মাঠে আধিপত্য বিস্তার করে খেলছিল বার্সেলোনা। ৫৯ মিনিটে জার্সি টেনে সার্জিও রামোসকে বার্সার ফরাসি ডিফেন্ডার ক্লেমোঁ লংলে ডিবক্সে ফেলে দিলে ভিএআর দেখে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন রেফারি। সফল স্পটকিকে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন রিয়াল অধিনায়ক। পরে লুকা মদ্রিচের আরো এক গোলে ৩-১ ব্যবধানে জয় পায় ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচ শেষে ভিএআর নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখান বার্সা কোচ রোনাল্ড কোম্যান। তবে রিয়াল শিবিরে সেসব নিয়ে ভাবনা নেই। দলটির কোচ জিনেদিন জিদান বলেন, ‘মাঠে কি ঘটেছে রেফারি দেখেছে। সিদ্ধান্তটা তারাই নিয়েছে। আমি কখনই রেফারিং নিয়ে কথা বলি না। এখনও বলবো না। জয়টা আমাদের প্রাপ্য ছিল। বার্সেলোনা সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হলেও আমরা কাজে লাগিয়েছি। জয়ের ব্যবধানটা আরো বড় হতে পারতো।’

লা লিগায় কাদিজের কাছে হারের পর চ্যাম্পিয়ন্স লীগে শাখতার দোনেৎস্কের কাছে হারের পর সমালোচনার মুখে পড়েন জিদান। এল ক্লাসিকো জিতে সরাসরি সমালোচকদের জবাব দেননি ফরাসি কিংবদন্তি। জিদান বলেন, ‘তিন পয়েন্ট নিয়ে ফিরতে পেরে আমি খুশি। এখন উদযাপন করার সময়। সমালোচকদের মুখ বন্ধ করা আমার কাজ নয়। আমরা এখানে (ন্যু ক্যাম্পে) এসেছিলাম জেতার জন্য। আমি গর্বিত আমরা সেটা পেরেছি।’

সার্জিও রামোস মনে করেন এটা পরিস্কার পেনাল্টি ছিল। জাতীয় দল ও ক্লাবের হয়ে নেয়া শেষ ২৫ পেনাল্টির সবকটিতেই সফল হওয়া এই ডিফেন্ডার বলেন, ‘আমি হেড নেয়ার জন্য লাফ দেয়ার সময় সে (ক্লেমোঁ লংলে) আমাকে টেনে ফেলে দেয়। তখনই সবকিছু পরিস্কার হয়ে যায়। সঠিক ঘটনার বিষয়ে রেফারির সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন তোলা উচিত নয়।’

ইনজুরির কারণে খেলতে পারেননি দুই ম্যাচ। দুটিতেই হেরেছে রিয়াল। এল ক্লাসিকোয় মাঠে ফিরে দলের জয়ে রাখলেন বড় ভূমিকা। রিয়াল অধিনায়ক বলেন, ‘এল ক্লাসিকোর মতো ম্যাচে সবসময় বাড়তি অনুপ্রেরণা কাজ করে। গত সপ্তাহটা বাজে কাটার পর আমরা আরো ভালো করার চ্যালেঞ্জ নিই। এই জয়টা আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে সাহায্য করবে। খারাপ একটা সময়ের পর যদি চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের সঙ্গে জয় পান সেটা অবশ্যই বাড়তি কিছু।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর