× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৬ নভেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার

প্রাণ ফিরতে শুরু করেছে মঞ্চ নাটকে

বিনোদন

মাজহারুল তামিম | ২৮ অক্টোবর ২০২০, বুধবার, ৮:০৩

এমনিতেই নানা চড়াই-উৎরাইয়ের মধ্যে থিয়েটার চর্চা করে আসছিল ঢাকা ও ঢাকার বাইরের নাটকের দলগুলো। তার মধ্যে চলতি মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রকোপের কারণে ব্যাপকভাবে থিয়েটারের কার্যক্রমে ব্যাঘাত ঘটেছে। এমনকি অনেক নাট্যকর্মী বাধ্য হয়ে নিজেদের এই জগৎ থেকে গুটিয়ে নিয়েছেন। এসব সংকটের মধ্যেই অবার নাট্যাঙ্গন চাঙ্গা করতে শিল্পকলা একাডেমিসহ অন্যান্য মিলনায়তনগুলো খুলে দিয়েছে সরকার। ইতিমধ্যে দীর্ঘ বিরতির পর গত ২৩শে অক্টোবর মঞ্চে অলো জ্বলেছে। ফলে ধীরে ধীরে ফের প্রাণ ফিরতে শুরু করেছে এ অঙ্গনে। সংশ্লিষ্ট কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নাটকের দলগুলোর প্রদর্শনীর জন্য তোড়জোড় শুরু হয়েছে। তারা  মানসিক ও শারীরকভাবে প্রস্তুতিও সেরে ফেলেছেন।
তবে কিছু শর্ত মানতে হবে। বড় হলে ২০০ আর ছোট হলে ১০০ এর বেশি দর্শক অবস্থান করতে পারবেন না। সুবিধাও দেয়া হয়েছে কিছু। এখন দলগুলোর মধ্যে যারা প্রদর্শনী করবে তাদের কাউকেই কোনো হল ভাড়া দিতে হবে না। তারই ধারাবাহিকতায় আগামী ৩০শে অক্টোবর প্রদর্শনী হবে ঢাকা থিয়েটার প্রযোজিত নতুন নাটক ‘একটি অলৌকিক অথবা লৌকিক জাহাজ’-এর। বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সেক্রেটারি জেনারেল কামাল বায়েজিদ বলেন, করোনার মধ্যে একটা আতঙ্কের মধ্যে আছি। তবে নতুন স্বাভাবিক জীবনে সবাই মানিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছি। তাই সরকার বিনোদন কেন্দ্রগুলো খুলে দিয়েছে। থিয়েটারও চালু হয়েছে। ধীরে ধীরে মঞ্চ নাটক চাঙ্গা হয়ে উঠুক এটাই চাই। আগামী মাসের ২৭ তারিখ নতুন নাটক প্রদর্শনী করবেন উল্লেখ করে খ্যাতিমান অভিনেতা, নির্দেশক, বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান মঞ্চ নাটকের দল ‘থিয়েটার’র প্রতিষ্ঠাতাদের একজন রামেন্দু মজুমদার বলেন, ধীরে ধীরে অবস্থা স্বাভাবিক হচ্ছে। আমরা চাইব দর্শকরাও যাতে নাটক দেখতে আসে। কারণ, এই কঠিন সময়ে দর্শক আসলেই কিন্তু মঞ্চকর্মীদের কাজের স্পৃহা বাড়বে। এদিকে ‘দেশ নাটক’ তাদেও চারটি নতুন প্রযোজনা প্রস্তুত করেছে। যেগুলো ধাপে ধাপে প্রদর্শীত হবে। দেশ নাটকের মাসুম রেজা বলেন, প্রত্যেকটা দল প্রদর্শনীর জন্য প্রস্তত। করোনার মধ্যে বিকল্প পন্থায় সবাই অনলাইনে রিহার্সেল করেছি। তবে করোনার কারণে অনেক দল সমস্যার মধ্যে পড়েছে। অনেক সদস্যরা দল থেকে হারিয়ে গেছে। আমরা চেষ্টা করছি সেই ঘাটতি পূরণ করে আবারো নতুন করে দলকে সংগঠিত করার। দেখা যাক কি হয়। তবে সব দলের এই মুহূর্তে ইতিবাচক থাকা উচিত। কারণ মনোবল ভেঙে গেলে আরও পিছিয়ে পড়ার সম্ভাবনা আছে। উল্লেখ্য, গত ২৮শে আগস্ট বেইলী রোডের মহিলা সমিতি মিলনায়তনে ‘লাল জমিন’ নাটকের প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে শুরু হয় নাটক প্রদর্শনী।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর