× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৪ নভেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার

এক ঘণ্টার জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী

বাংলারজমিন

ফেনী প্রতিনিধি | ২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৮:৫০

নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে, নারীবান্ধব উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলতে এবং নারীর উন্নয়নে কাজ করতে এক ঘণ্টার জন্য ফেনী সদর উপজেলা পরিষদের প্রতীকী চেয়ারম্যান হয়েছেন মাহবুবা তাবাসসুম ইমা নামের দ্বাদশ শ্রেণির এক ছাত্রী।
বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টায় ফেনী সদর উপজেলা পরিষদের কার্যালয় এক ঘণ্টার জন্য প্রতীকী উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে ওই ছাত্রী চেয়ারম্যান আবদুর রহমান বি.কমের কাছ থেকে দায়িত্ব বুঝে  নেন। এ সময় তার অধীন হন পুরো সদর উপজেলা পরিষদের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।
প্রতীকী উপজেলা চেয়ারম্যানের দায়িত্ব গ্রহণ উপলক্ষে আয়োজিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ফেনী প্রেস ক্লাবের সভাপতি মুহাম্মদ আবু তাহের ভূঁইয়া, এনসিটিএফ’র উপদেষ্টা আসাদুজ্জামান দারা। প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল ইয়েস বাংলাদেশ ফেনী জেলা স্বেচ্ছাসেবক আদিবা তাবাসসুমের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেনÑ দৈনিক মানবজমিন ও বিডিনিউজের প্রতিনিধি নাজমুল হক শামীম, যমুনা টিভি’র প্রতিনিধি আরিফুর রহমান, ইমার মা শিক্ষিকা ফাতেমা আক্তার, প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল ইয়েস বাংলাদেশ ফেনী জেলা স্বেচ্ছাসেবক ইমাম উদ্দিন আহমেদ ইমন প্রমুখ।
এনসিটিএফ ফেনী জেলা সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মুরাদ জানায়, কন্যাশিশু দিবস উপলক্ষে নারীর ক্ষমতায়নের জন্য বেসরকারি সংস্থা প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল ও ন্যাশনাল চিল্ড্রেন ট্রান্সফোর্সের (এনসিটিএফ) উদ্যোগে উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভাকে নারীবান্ধব করতে ও নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে প্রতীকী উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে সুপারিশমালা তুলে ধরে মাহবুবা তাবাসুম ইমা। একইসঙ্গে এক ঘণ্টায় উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন কাজ করার পাশাপাশি তদারকিও করে সে।
এক ঘণ্টার জন্য দায়িত্ব বুঝে নিয়ে ইমা জানায়, ৯২৮ বর্গ কিলোমিটারের ফেনী জেলাকে বাল্যবিয়ে মুক্ত করা হবে। উপজেলার প্রতিটি বিদ্যালয়ে প্রবেশের পথকে ইভটিজিং মুক্ত করা হবে। স্কুল গুলোর সামনে থাকা ইভটিজারদেরকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।
 
মাহবুবা তাবাসসুম ইমা সংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি এখন প্রতীকী উপজেলা চেয়ারম্যান হয়েছি। আগামীতে আমি দেশের প্রধানমন্ত্রী হতে চাই। প্রধানমন্ত্রী হয়ে দেশ সেবা করবো। দেশকে ধর্ষকমুক্ত করবো।
ইমা রাজধানীর উত্তরা হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী। তিনি ন্যাশনাল চাইল্ড পার্লামেন্টের কো- চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া তিনি ন্যাশনাল চিল্ড্রেন ট্রান্সফোর্স (এনসিটিএফ) জেলা শাখার সাবেক শিশু গবেষক।
অনুষ্ঠানে প্রতীকী উপজেলা চেয়ারম্যানের সঙ্গে বাল্যবিয়ে, নারী নির্যাতনসহ নারীর প্রতি সব ধরনের সহিংসতা রোধে আলোচনা করা হয়। এ সময় প্রতীকী চেয়ারম্যানের দেয়া বিভিন্ন সুপারিশ আমলে নেয়ার আশ্বাস দেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুর রহমান বি.কম। তিনি ইমার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করেন।

 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর