× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৭ নভেম্বর ২০২০, শুক্রবার

তবারক খাওয়ানোর প্রলোভনে প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ১

বাংলারজমিন

ফেনী প্রতিনিধি | ২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১১:২৯

ফেনীর পরশুরামে এক প্রতিবন্ধী তরুণীকে (২০) ধর্ষণের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় নুর আলমকে (৫২) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার দিবাগত রাতে তাকে পরশুরাম উপজেলার বক্সমাহমুদ ইউনিয়নের দক্ষিণ চারিগ্রামের বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি ওই গ্রামের ননু মিয়ার ছেলে বলে জানিয়েছেন পরশুরাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শওকত হোসেন।
মামলার এজহারের বরাত দিয়ে ওসি জানান, গত ১৬ই অক্টোবর বাড়ীর পাশে একটি মসজিদের সামনে মিলাদের তবারক খাওয়ার জন্য যায় ওই প্রতিবন্ধী তরুণী। তখন নুর আলম ওই তরুণীকে তবারক খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে পাশের একটি নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় স্থানীয় একজন পথচারী ওই তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনাটি দেখে ফেলেন। ঘটনার ৮দিন পর গত ২৪শে অক্টোবর ওই ধর্ষণের বিষয়টি প্রকাশ পেলে এলাকায় তীব্র সমালোচনা ও উত্তেজনা দেখা দেয়। এরপর গত ২৭শে অক্টোবর ওই তরুণীর মা বাদী হয়ে পরশুরাম থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।
এরই প্রেক্ষিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত নুর আলমকে গ্রেপ্তার করে। বৃহস্পতিবার সকালে তাকে ফেনীর বিচারিক হাকিমের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এদিকে বুধবার ফেনী জেনারেল হাসপাতালে ওই তরুণীর শারীরিক পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। একই দিন আদালতে ওই তরুণী ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে বলেও জানিয়েছেন ওসি মো. শওকত হোসেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর