× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৫ ডিসেম্বর ২০২০, শনিবার

ফ্রান্সের চার্চে 'আল্লাহু আকবর' বলে ছুরি হামলা, নিহত ৩

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) অক্টোবর ২৯, ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৫:০৭ পূর্বাহ্ন

ফ্রান্সের নিস শহরের একটি গির্জায় সন্ত্রাসী হামলায় কমপক্ষে তিনজন নিহত হয়েছেন। হামলাকারী 'আল্লাহু আকবর' বলে চিৎকার করতে করতে ছুরি দিয়ে হামলা চালান বলে জানিয়েছেন উপস্থিতরা। পুলিশ হামলাকারীকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারের পরেও তিনি আল্লাহু আকবর বলে যাচ্ছিলেন বলে জানিয়েছেন শহরের মেয়র। ঘটনায় আরো বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা ও ডয়েচে ভেলে।

এরইমধ্যে মেয়র ক্রিশ্চিয়ান এস্ত্রোসি একে সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। তিনি টুইটারে জানিয়েছেন, শহরের নটরডেম চার্চে এই ছুরি হামলার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পরপরই পুলিশ হামলাকারীকে গ্রেপ্তার করেছে।
তিনি নিশ্চিত করেন যে, হামলায় দুই নারী এবং এক পুরুষ নিহত হয়েছেন। এরমধ্যে একজন আহত অবস্থায় একটি বারে আশ্রয় নেন এবং সেখানেই তার মৃত্যু হয়। মেয়র বলেন, অপর একজনকে ভয়াবহ নৃসংসতার সঙ্গে হত্যা করা হয়েছে। তিনি একে গত সপ্তাহে নিহত হওয়া শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটির হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে তুলনা করেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
ড ওমর ফারুক
৩১ অক্টোবর ২০২০, শনিবার, ৪:০৬

এসব হামলা মুসলিমদের দ্বারা নয়। বরং মুসলিম নামধারী সেজে অন্য ইসলামবিদ্বেষী গোষ্ঠী করে থাকতে পারে। ফরাসী সরকারের মদদপুষ্ট হতে পারে সে গোষ্ঠী। ইসলাম এবং মুসলমান জনগোষ্ঠীর ভূমিকাকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য এমন হামলা হতে পারে। যেমন ভারত এবং বাংলাদেশে এমনটি হয়। পাকিস্তানেও হয়। সহিংস এবং ইসলাম বিদ্বেষী হিন্দু সন্ত্রাসীরা পরিকল্পিত ভাবে নিজেরাই হিন্দুদের তীর্থস্থানে হামলা বা কোন হিন্দু হত্যা কিংবা বাড়ি ঘরে হামলা করে ইসলাম এবং মুসলিমদের ওপর নিষ্পেষণ চালানোর বা নির্বাচন পূর্বে জনসমর্থনের পাল্লা ভারী করার অপপ্রয়াস চালাতে এটি করে থাকে। বাংলাদেশ ও ভারতে অনেক ঘটনা এমন হয়ে যাবার নজির রয়েছে। এসব মনে হবার এটিই বড় যৌক্তিক কারণ ।

Faruque Ahmed
৩১ অক্টোবর ২০২০, শনিবার, ১০:০৭

এটি এখন historicalতিহাসিক ঘটনা। এর আগে আমরা অনেকগুলি উদাহরণ পেয়েছি যে, কিছু অন্যান্য ধর্মীয় লোক গোপনে মুসলমানদের সাথে মিশ্রিত কিছু ক্রিয়াকলাপ করেছিলেন। শেষ পর্যন্ত মুসলমানদের দোষ দেওয়া হয়েছিল। তারা অবৈধভাবে মুসলমানদের বিরুদ্ধেও প্রমাণিত হয়েছিল।

মোঃ হাসিম মিয়া
৩০ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার, ৮:৫৬

একজন মুসলমান কখনও এরকম কাজ করতে পারে না, এটা মহানবী (সাঃ) শিক্ষা নয়, কোন এক মহল এর পিছনে কাজ করছে, যারা ইসলামের ভাল চাইনা। এটা অবশ্যই ঘৃনার কাজ। তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তী হওয়া উচিৎ। যাতে এরকম কাজ করার সাহস কেউ না পায়।

কে এমন জিন্নাহ
২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৭:৪৫

ঈমানদার ব্যক্তিগণকে আরো সংযত হতে হবে, ঘটনার প্রেক্ষিতে ক্ষোভ হওয়া খুব স্বাভাবিক, কিন্তু কোন নিরাপরাধ লোককে হত্যা করা কোনোভাবেই কাম্য নয়, নারী বা শিশুকে তো নয় ই।

এ কে এম মহীউদ্দীন
৩০ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার, ৮:২৫

এই অতি আবেগি মানুষদের কাজের ফলে ইসলামের ও মুসলিমদের যে ভয়ানক ক্ষতি হয় তা আমাদের আলিম সমাজের সবাইকে বুঝান দরকার।

MD Ariful Islam
২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৫:৩১

Shanto ২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৬:৫৪ আল্লাহু আকবার বলিলেই সেই মুসলিম নয়, নিশ্চয় সে আল্লাহু আকবার বলে মুসলিমদের উপর দোষ দেওয়ার জন্য প্লান করেছে, প্রকৃত মুসলমান কখনো কাউকে এভাবে মারতে পারেনা, এটা আমাদের নবীর শিক্ষা নয়।

Jesmin Anowara
২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৭:০৪

This type of action totally unacceptable in Islam but Macron is responsible for it , he should be prosecuted

মোতাহার
২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৬:৫৭

অবশ্যই ইসলাম এভাবে হামলা সমর্থন করেনা, তবে কোনো একটি জনগোষ্ঠীকে খুঁচিয়ে উত্যক্ত করে ফরাসী কর্তৃপক্ষ এই পরিস্থিতি নিজেরাই সৃষ্টি করেছে। শুধু সন্ত্রাসবাদকে দোষারোপ করলেই হবেনা। সন্ত্রাসবাদ তৈরীর পিছনে যারা দায়ী তাদের চিহ্নিত করে দোষারোপ করে আগে তাদের বিরূদ্ধে ব্যাবস্থা নেয়া উচিৎ। এখন এই কাতারে সবার উপরে অবস্থান করছে ইমানুয়েল ম্যাক্রোন।

Abdul Hannan Shanto
২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৬:৫৪

আল্লাহু আকবার বলিলেই সেই মুসলিম নয়, নিশ্চয় সে আল্লাহু আকবার বলে মুসলিমদের উপর দোষ দেওয়ার জন্য প্লান করেছে, প্রকৃত মুসলমান কখনো কাউকে এভাবে মারতে পারেনা, এটা আমাদের নবীর শিক্ষা নয়।

ওবাইদুল ইসলাম
২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৬:৩৩

মুসলিম চরম পন্থিদের উস্কানি দিয়ে এই ধরনের ধরনের হঠকারী কাজ হবার দায় নিয়ে ফরাসী প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রর পদত্যাগ করা উচিৎ ।

Aftab Chowdhury
২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৫:১৮

এর জন্য উগ্র খৃস্টান ম্যাক্র র ইসলাম বিদ্বেসি নীতিই দায়ি ।

Mohammed Faiz Ahmed
২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৫:৫১

এভাবে হামলা করাকে ইসলাম সমর্থন করেনা। মুসলমানদের জীবনের চেয়ে মহানবী কে বেশী ভালবাসে, তাই ফ্রান্সের উচিৎ মহানবী নিয়ে কার্টুন প্রচারেরর জন্য ক্ষমা চাওয়া।

অন্যান্য খবর