× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার
কলকাতা  কথকতা 

জো বাইডেনের শিকড়ের খোঁজে কলকাতা তোলপাড় 

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী,  কলকাতা 
(২ মাস আগে) নভেম্বর ৯, ২০২০, সোমবার, ১১:৫৪ পূর্বাহ্ন

বিষয়টি উত্থাপন করেছিলেন জো বাইডেন নিজেই। আমেরিকার ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে ভারত সফরে এসে বলেছিলেন,  ভারতে তাঁর শিকড় আছে।  ১৯৭২ সালে মাত্র ২৯ বছর বয়েসে তিনি  সিনেটর হওয়ার পর মুম্বই থেকে বাইডেন পদবীধারী এক ব্যক্তি তাঁকে  অভিনন্দন জানিয়ে চিঠি  লিখেছিলেন।  সময়াভাবে চিঠির উত্তর দেয়া সম্ভব হয়নি। চিঠিটিও হারিয়ে যায়।  বাইডেন জানান, তার গ্রেট গ্রেট গ্রেট গ্রেট গ্রেট  গ্রেট গ্রান্ডফাদার  জর্জ বাইডেন ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পনির জাহাজের ক্যাপ্টেন ছিলেন এবং কলকাতায়  নিজেদের বিস্তৃত করেছিলেন।  কলকাতায় এক বাইডেনের খবর মিলেছে, যিনি দীর্ঘদিন আগে লা মার্টিনিআর  স্কুল এর হেডমাস্টার ছিলেন।  আরও কয়েকজন বাইডেনের সন্ধান মিলেছে, যারা জর্জ বাইডেনের ভাই ক্রিস্টোফারের বংশধর।  অর্থাৎ,  জো  বাইডেনের শিকড় যে ভারতে তা মানছেন  গবেষকরাও।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
shiblik
১৭ নভেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার, ৯:০১

নামে হোক, ভায়া হোক, আমেরিকাকে ভারত দখল করে ছাড়বে। কমলা, হলিউড, বাইডেন, রে (রায় কে বলে "রে") - সব পথ খোলা।

Khalil
৯ নভেম্বর ২০২০, সোমবার, ৪:২৫

যতই শিকড় খোঁজা হোক না কেন বাইডেনের পছন্দের ব্যক্তি কখনো মোদি হতে পারে না। আর ট্রামপকে নিয়ে মোদি ও কিছু ভারতীয় যে ভাবে লাফালাফি করেছে বেকুপের মত তাতে racist মোদির ভবিষ্যত ভালো দেখছি না। Racism ও স্বৈরচার বিদায় হওয়া শুরু হল মাত্র। ২০২১ এ এদের সবাইর বিদায় হয়ে যাবে বলে মনে হচ্ছে। পালের গোদা দিয়ে শুরু হয়েছে ।

Faruque Ahmed
৯ নভেম্বর ২০২০, সোমবার, ৫:১১

He was cousin of Modi. all right !!! So what? will you dance ? will you sing? Stupid people should maintain at least a tolerance level. তিনি ছিলেন মোদীর চাচাত ভাই। ঠিক আছে !!! তাতে কি? তুমি নাচবে? তুমি কি গান গাইবে? বোকা লোকদের কমপক্ষে সহনশীলতার স্তর বজায় রাখা উচিত।

Shahjahan Sarkar Sha
৯ নভেম্বর ২০২০, সোমবার, ৪:১৭

কমলা বর্তমান আমেরিকান প্রেসিডেন্ট এখন ভারতীয়দের সুবর্ণ সুযোগ এই কমলা ইন্ডিয়ার আমূল পরিবর্তন করে দিবে I ইন্ডিয়ান পঙ্গপালরা পঙ্গপালের মতো ইন্ডিয়ান বেকাররা আমিরিকায় ঢুকতে পারবে এই সুজুগ এখন ইন্ডিয়ানদের হাতের নাগালে I যদি কিনা কমলা শর্ত জুড়ে দেয় যে তোমরা তোমাদের গুমুত্ররো পান বন্দ করতে হবে I তাহলে আমি তোমাদের পৃথিবীর সর্ব কালের সর্ব বৃহৎ বস্তির উন্নতি এবং অনেক টয়লেট বানিয়ে দেব I যাহাতে তোমাদের আর সকালে রাস্তার পাশে বসতে না হয় I তবে এখানেও সমাস্যা আছে কমলার অর্ধেক দাবি জ্যামাইকা ও করতে পারে I তাতেই সম্যসা বাড়তে পারে তবে ইন্ডিয়ানরা আশা তো করতেই পারে I তবে এই বেপারে আনন্দবাজার পত্রিকা সাহায্য করতে পারে এই পত্রিকাকে সবাই যে একটা নিম্ল শ্রেণীর মনে করে তা কিন্তু নয় I অনেকেই এই পত্রিকা পড়ে এবং সমাদর ও করে I আমেরিকায় Howdy মোদী সম্বর্ধনা আহমাবাদ এ মোদী ট্রাম্প ভাই ভাই কোলাকুলি বৃথা যাবার নয় I চীন ভারত দুর্দিনে আবারো আমিরিকা বন্ধু দেশ ভারতের পাশে দাঁড়াবে তা না হলে ভারত তার ৩৫ রাফাল দিয়ে চীনকে ঠেকাবে I বাংলাদেশ ও ভারতকে সাহায্য করতে পারে যদিও অনেক বাংলাদেশী ভারতকে বিশ্বাসগতক হিসাবে চিন্নিত করে ফেলেছে I তবুও পূর্ব বাংলার মানুষদের মায়া বাংলাদেশ কোনো দিনই ছাড়তে পারবে না, এই বাংলার মানুষের জীন বাংলাদেশের মানুষের জীন এক, তাতে কোনো বাঙালির সন্দেহ থাকার কোনো অবকাশ নাই I শুধু এরাই মুক্তি যুদ্ধের সময় ওদের দুই বেলার খাবার একভাগ মুক্তিযোদ্ধাদের আদর করে খায়েছে ওদের অনেক দান I বাংলাদেশের উচিত শুধু ইন্ডিয়ার এই অংশ টুকুকেই কৃতজ্ঞতা শিকার করা আর বাকি রা শুধুই ওদের স্বার্থের কারণে পাকিস্তানকে দুর্বল করে দেয়া I ওরা বলছে ওই যুদ্ধে ওদের ২৬০০ আর্মি প্রাণ হারিয়েছে এটা সম্পূর্ণ মিথ্যে I কথা সত্য হলো আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের দ্বারা স্বাধীন করা দেশের পাকিস্তানিদের সমস্ত অস্র লুট করে নিয়ে যাওয়া এবং যাওয়ার সময় পিস্তল এবং অন্য অস্রের বিনিময়ে জিলেট ব্লেড, বিদেশী কসমেটিক, সিগারেট ইত্যাদি হাতিয়ে নেয়া I দেশের যুব সমাজকে অধঃপতনে ঠেলে দেয়া ওদের পূজা করা আমাদের দরকার নাই আমরা স্বাধীন প্রধানমন্ত্রী তার পলিসি কারোর সাথে শত্রুতা নয় সবাইর সাথে বধুত্ব থাকবে ওনি যদি তা করতে পারেন তা হলে এটা এই যুগের সর্বোচ্চ সর্বজন সিকৃত পলিসি I

Mohammed Faiz Ahmed
৯ নভেম্বর ২০২০, সোমবার, ৩:৩৮

এসব আত্নিয়ের ব্যাপারে ''তালে বালে জোড়া দিয়ে হোমনার তাওই''মকবুল স্যার তাই বলতেন।

মুহাম্মদ আনোয়ারুল কা
৯ নভেম্বর ২০২০, সোমবার, ২:৪১

ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পনি কেবল ভারতে কেন ? বর্তমান বাংলাদেশ, পাকিস্তানও তো এর অংশ ছিল । তো সবাই মিলে অনুসন্ধান টিম করে তেলের ড্রাম নিয়ে লাফালাফি করুক।

মুহাম্মদ আনোয়ারুল কা
৯ নভেম্বর ২০২০, সোমবার, ২:৪১

ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পনি কেবল ভারতে কেন ? বর্তমান বাংলাদেশ, পাকিস্তানও তো এর অংশ ছিল । তো সবাই মিলে অনুসন্ধান টিম করে তেলের ড্রাম নিয়ে লাফালাফি করুক।

Milon
৮ নভেম্বর ২০২০, রবিবার, ১১:৫৪

শিখড় খুঁজে বাইডেনের জন্য ভারত তেলের ডাম নিয়ে দৌড়াদৌড়ি করুক বিশেষ করে মৌলবাদী মোদির ভারত।

অন্যান্য খবর