× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৫ ডিসেম্বর ২০২০, শনিবার

জিতের কাছে অমিতাভ বচ্চনের চিঠি!

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক
২১ নভেম্বর ২০২০, শনিবার

টলিউড সুপারস্টার জিতের কাছে বলিউড শাহেনশার তরফে চিঠি এসেছে। আর সেই মহার্ঘ্য চিঠিই টলিউড অভিনেতা শেয়ার করেছেন নিজের ইনস্টাগ্রামে। জিতের কাছে এই চিঠি মহার্ঘ্য তো বটেই, কারণ তিনি তো আদতে অমিতাভ-ভক্ত। গুরুর মতোই মান্যি করেন বিগ বি’কে।
প্রসঙ্গত, এর আগে বোল বচ্চন নামে একটি ছবিতে জিৎ অভিনয়ও করেছিলেন। সেই ছবিতে অভিনয়ের নেপথ্যের কারণ ছিলা গুরুর প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য। ওদিকে অমিতাভ বচ্চনও জিতের ফিল্মি ক্যারিয়ারে ৫০তম ছবির কথা মাথায় রেখে ‘শেষ থেকে শুরু’ রিলিজ করার সময় ভিডিও বার্তায় বিশেষ শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন। টলিউড অভিনেতার বেশ কিছু সিনেমাও নাকি তিনি দেখে ফেলেছেন। সম্পর্কটা নেহাত গুরু-শিষ্যর মতো।
কিন্তু প্রিয় বচ্চন সাহেবের সঙ্গে তো জিতের এই সম্পর্ক আজকের নয়, শুরুটাও হয়েছিল প্রায় নব্বইয়ের দশকের শেষের দিকে। তা হঠাৎ অমিতাভ কেন চিঠি পাঠালেন জিৎকে? আসলে অমিতাভ বচ্চনের অফিস থেকে আসা এই চিঠি বহু বছর আগেকার। সময়টা ১৯৯৬ সাল। সেই সময় জিৎ নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে স্ট্রাগল করছেন। ফিল্মি ক্যারিয়ার গড়ে তোলার জন্য কলকাতা থেকে মুম্বইয়ে ছোটাছুটি করছেন। ঠিক সেই সময়ই তার কাছে চিঠি আসে অমিতাভ বচ্চন কর্পোরেশন লিমিটেডের তরফে। কারণ, তখন বচ্চন সাহেবের সংস্থা এবিসিএল উঠতি তারকাদের জন্য একটি প্রতিযোগীতা শুরু করেছিল, যার নাম স্টারট্র্যাক। নতুন অভিনেতাদের কাজের সুযোগ করে দেওয়াই ছিল এই প্রতিযোগীতার মূল লক্ষ্য। সেখানেই অংশগ্রহণ করেছিলেন জিৎ। নাম নথিভুক্ত করানোর পর ডাকও পেয়ে যান। আজ জিৎ বাংলা ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম সফল তারকা। কিন্তু ১৯৯৬ সালের ৮ জানুয়ারি তাকে অমিতাভের সংস্থার কাছে ইন্টারভিউ দিতে হয়েছিল কলকাতারই তাজ বেঙ্গল হোটেলে। সেই মিষ্টি-মধুর স্মৃতি রোমন্থনই ভেসে উঠল জিতের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর