× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৪ ডিসেম্বর ২০২০, শুক্রবার
কলকাতা কথকতা

করোনায় ‘মৃত’ বৃদ্ধ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন শ্রাদ্ধের দিনে

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা | ২১ নভেম্বর ২০২০, শনিবার, ৯:০৬

মধুর ভ্রান্তিবিলাস ছাড়া এই ঘটনাকে আর কি বলা যেতে পারে? করোনা আক্রান্ত হয়ে বিরাটির বাসিন্দা শিবদাস বন্দোপাধ্যায়  খড়দহ এর  বলরাম বসু সেবামন্দির কোভিড  হাসপাতালে ভর্তি হন।  একই দিনে খড়দহের মোহিনীমোহন মুখোপাধ্যায়ও করোনা নিয়ে ভর্তি হন একই হাসপাতালে। দুই বৃদ্ধই সংকট জনক অবস্থায় পৌঁছান।  মোহিনী বাবুকে খড়দহের হাসপাতাল থেকে রেফার করা হয় বারাসাত হাসপাতালে। কিন্তু, বলরাম বসু হাসপাতালের গাফিলতিতে শিবদাস বন্দোপাধ্যায় এর কাগজপত্র যায় বারাসাত হাসপাতালে। মোহিনী বাবু শিবদাস বাবুর নামেই চিকিৎসা পেতে থাকেন। কিন্তু, মোহিনী বাবু চিকিৎসায় সাড়া দেননি। তাঁর মৃত্যু হয়। বারাসাত হাসপাতাল কাগজপত্র দেখে শিবদাস বাবুর বাড়িতে তাঁর মৃত্যুসংবাদ পৌঁছে দেয় ও জানায় কোভিড বিধি মেনে তাঁর দেহ দাহও হয়ে গেছে। শোকসন্তপ্ত পরিবার নিয়ামানুযায়ী শ্রাদ্ধের আয়োজন করে।
শ্রাদ্ধের সব আয়োজন যখন সাড়া তখন শ্রাদ্ধের আগের রাতে কোভিড নেগেটিভ শিবদাস বাবু হাসপাতালের আম্বুলেন্স চেপেই বাড়িতে আসেন। নিজের শ্রাদ্ধের আয়োজন দেখে তাঁর চোখ তখন ছানাবড়া।  বাড়িতে তখন কান্নার বদলে আনন্দের রোল। সেদিনই মোহিনী বাবুর বাড়ির লোকরা জানতে পারল তিনি আর নেই। হাসপাতালের বাইরে থেকে তারা এতদিন শিবদাস বাবুর স্বাস্থ্যের উন্নতির কথা শুনে ভাবছিলো, মোহিনী বাবু আরোগ্য লাভ করছেন। যে হাসপাতালের বদান্যতায় এই ভ্রান্তিবিলাস ঘটলো তাদের কি শাস্তি প্রাপ্য?          

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
SJ
২২ নভেম্বর ২০২০, রবিবার, ৩:৩৫

না , শাস্তি প্রাপ্য না যদি তারা ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়ে নেয় ।

Dr. Md Abdur Rahman
২১ নভেম্বর ২০২০, শনিবার, ১০:০৬

The hospital's license must be cancelled with a fine of 1 crore Rupee and the doctors-nurses registration should be cancelled with Fine and Jail treatment.

অন্যান্য খবর