× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২১ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

অর্থপাচারকারীদের তথ্য চেয়েছেন হাইকোর্ট

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
২৩ নভেম্বর ২০২০, সোমবার

বিদেশে অর্থ পাচারকারীদের নাম, ঠিকানাসহ অর্থপাচারে জড়িতদের তালিকা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট আগামী ১৭ই ডিসেম্বরের মধ্যে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান, স্বরাষ্ট্র সচিব, পররাষ্ট্র সচিব, বাংলাদেশ ব্যাংক, বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টিলিজেন্স ইউনিট, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) চেয়ারম্যানকে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে এই আদেশ দেন।
একই সঙ্গে অর্থ পাচারে সম্পৃক্ত ‘দুর্বৃত্ত ও এজেন্টদের’ দেশ থেকে অর্থপাচারে বিরত রাখতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন আদালত। এ ঘটনায় একটি রুলও জারি করেছেন আদালত। রুলে অর্থপাচারকারী সরকারি কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ী, রাজনীতিক, ব্যাংকারসহ সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ গ্রহণে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ ও বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়েছে হাইকোর্ট। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে বিবাদীদের এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানির জন্য আগামী ১৭ই ডিসেম্বর (কজলিস্ট) কার্যতালিকায় থাকবে বলে জানিয়েছেন আদালত।
আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক।
শুনানিতে আদালত বলেন, যারা অর্থপাচার করছে, তারা দেশ ও জাতির শত্রু।
তারা দেশ ও জাতির সঙ্গে বেঈমানি করছে বলেও মনে করেন আদালত। এ সময় দুর্নীতি দমন কমিশনের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান আদালতকে বলেন, এটা কালচার (সংস্কৃতি) হয়ে গেছে। জবাবে বিচারক বলেন, দেশের মাটিতে থাকবে, পড়াশোনা করবে কিন্তু সব শেষে দেশকে ঠকিয়ে বিদেশে টাকা পাচার করবে, এটা তো হতে পারে না। দেশের প্রতি ভালোবাসা থাকলে, এটা কখনো করতে পারে না। আদালত বলেন, এভাবে তো আমরা দুর্বৃত্তদের গ্রহণ করতে পারি না। দেশের টাকা অবৈধভাবে বাইরে চলে যাবে, আমাদের এতোগুলো আইনগত সংস্থা, কোর্ট রয়েছে। আমাদের অবশ্যই এগুলো বন্ধ করতে হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর