× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার

গরিব দেশগুলোর টিকা পাওয়া নিয়ে উদ্বেগ মারকেলের

দেশ বিদেশ

মানবজমিন ডেস্ক
২৪ নভেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার

ফাইজার, মডার্না এবং সর্বশেষ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা তাদের করোনাভাইরাসের টিকার সফলতা ঘোষণা করেছে। যুক্তরাষ্ট্রে দৃশ্যত আগামী ১১ই ডিসেম্বর থেকে করোনাভাইরাসের টিকা প্রয়োগ শুরু হতে পারে। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র, বৃটেনসহ পশ্চিমা বিশ্বের অনেক দেশে যখন একরকম স্বস্তি দেখা দিয়েছে, তখন বিশ্বের গরিব দেশগুলোর বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মারকেল। গরিব দেশগুলো সহজে এই টিকা পাবে না বলে তারা আতঙ্কিত। সৌদি আরবের আয়োজনে এবার ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনে তিনি এই উদ্বেগের বিষয় তুলে ধরেন। সেখানে অন্য নেতারা যখন করোনাভাইরাসের সুষ্ঠু বিতরণ নিয়ে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছিলেন, তখনই অ্যাঙ্গেলা মারকেল তার বক্তব্যে গরিবের পক্ষে কথা বললেন। তিনি এ সময় সতর্কতা উচ্চারণ করেন যে, পুরো প্রক্রিয়াটি হবে ধীরগতির। একই সঙ্গে তিনি বলেন, গরিব দেশগুলো কীভাবে এই টিকা পাবে এ বিষয়টি তিনি তুলে ধরবেন বৈশ্বিক টিকা বিষয়ক জোট ‘জিএভিআই’ (গাভি)-এর কাছে।
অ্যাঙ্গেলা মারকেল বলেন, এখন যখন এই আলোচনা চলছে তখন আমি ‘গাভি’র সঙ্গে কথা বলবো না। কারণ, আমি এখনো উদ্বিগ্ন এ জন্য যে, এসব গরিব দেশের জন্য এখনো কিছুই করা হয়নি। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি। এতে আরো বলা হয়, জি-২০’র সম্মেলনে ধনী দেশগুলো প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, করোনাভাইরাস সংক্রমণে যেসব দরিদ্র দেশ মারাত্মকভাবে আর্থিক ক্ষতির শিকারে পরিণত হয়েছে তাদেরকে সহায়তা করবে তারা। কিন্তু এ খাতে কীভাবে অর্থ খরচ করা হবে, সহায়তা দেয়া হবে তার তেমন বিস্তারিত কিছুই বলা হয়নি। জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন থেকে করোনাভাইরাসের উৎপাদন ও সুষ্ঠু বিতরণ ব্যবস্থায় তাৎক্ষণিক আর্থিক বিষয় নিয়েও আলোচনা করা হয়েছে। একই সঙ্গে আলোচনা হয়েছে এই ভাইরাসে আক্রান্তদের পরীক্ষা ও চিকিৎসা নিয়ে। সমাপনী বিবৃতিতে গ্রুপটি বলেছে, সব মানুষের কাছে এই টিকা সামর্থ্যরে মধ্যে এবং সমতার ভিত্তিতে বিতরণ নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে কোনো প্রচেষ্টার ঘাটতি রাখবো না।
সংবাদ সম্মেলনে সৌদি আরবের অর্থমন্ত্রী মোহাম্মদ আল জাদান জোর দিয়ে বলেছেন, জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনে ঐকমত্য হয়েছে যে, যদি একটি দেশকে আমরা বাদ রাখি, তাহলে আমরা পিছিয়ে পড়বো। তবে এখানে উল্লেখ্য, বৃটেনসহ ধনী দেশগুলো এরই মধ্যে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ টিকা আগাম কিনে নিয়েছে। সম্মেলনে অ্যাঙ্গেলা মারকেলের সঙ্গে সুর মিলান ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন। টিকার ডোজ দান করে, শিল্পায়নে অংশীদারিত্ব বাড়িয়ে এমনকি বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদ শেয়ার করার মাধ্যমে গরিব দেশগুলোর পাশে আরো বেশি অগ্রসর এবং আরো দ্রুতগতিতে সমর্থন করার আহ্বান জানান তিনি। সমাবেশে ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লিয়েন বলেছেন, ৪৫০ কোটি ডলারের তথাকথিত এসিটি-এক্সেলারেটরের জন্য আরো অধিক অর্থের প্রয়োজন। এখানে উল্লেখ্য, এসিটি-এক্সেলারেটর হলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা নেতৃত্বাধীন একটি মেকানিজম বা কৌশল। এর লক্ষ্য করোনার পরীক্ষা, চিকিৎসা ও সবাইকে টিকা দেয়া। উল্লেখ্য, গত বছর ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়ার পর এ পর্যন্ত বিশ্বে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৬ কোটি মানুষ। এতে মারা গেছেন কমপক্ষে ১৪ লাখ মানুষ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর