× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার

ক্লান্ত-বিরক্ত মেসিকে ‘মুক্তি’ দিলেন গ্রিজম্যান

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৪ নভেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার

অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ থেকে বার্সেলোনায় নাম লেখানোর পর থেকে নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন অঁতোয়ান গ্রিজম্যান। দেড় বছর পরও বার্সেলোনার জার্সিতে নিজেকে মেলে ধরতে ব্যর্থ বিশ্বকাপজয়ী ফরাসি স্ট্রাইকার। ফরাসি তারকার অফ ফর্মের জন্য লিওনেল মেসিকে দায়ী করেন গ্রিজম্যানের চাচা ইমানুয়েল লোপেজ ও সাবেক এজেন্ট এরিক ওলহাটস। এমন অভিযোগ ওঠার পর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখান আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। ভিত্তিহীন অভিযোগের জবাবে ক্ষুব্ধ মেসি তখন বলেছিলেন, ‘এসব বানোয়াট অভিযোগের জবাব দিতে দিতে আমি এখন ক্লান্ত। আর ভালো লাগে না। এসব থেকে মুক্তি চাই।’ এরপর লা লিগায় অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে একসঙ্গে মাঠেও নেমেছেন মেসি-গ্রিজম্যান। অবশেষে নীরবতা ভেঙেছেন ফরাসি স্ট্রাইকার। কথা বলেছেন মেসির সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে।
ক্লান্ত-বিরক্ত মেসিকে সব অভিযোগ থেকে ‘মুক্ত’ করেছেন গ্রিজম্যান।

সোমবার দেয়া এক সাক্ষাতকারে গ্রিজম্যান বলেন, ‘সে (এরিক ওলহাটস) আমার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ একটা অংশ। তার সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নেই। (২০১৭ সালের জুনে) আমার বিয়েতে তাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলাম। সে আসেনি। এরপর থেকে তার সঙ্গে আমার যোগাযোগ নেই।’

চাচা ইমানুয়েল লোপেজের ফুটবল জ্ঞান নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন গ্রিজম্যান। তিনি বলেন, ‘আমার চাচার ফুটবল সম্পর্কে নূন্যতম ধারণা আছে বলে আমার মনে হয় না। সাংবাদিকরা এমন একজনের কাছ থেকে কিভাবে বিবৃতি নেয় আমার বোধগম্য হয় না। এ বিষয়ে মেসির সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। আমি মেসিকে বলেছি, তার সঙ্গে আমার কথা হয় না। তার সঙ্গে যোগাযোগের কোন ফোন নম্বর আমার কাছে নেই। এমনকি আমার বাবা-মায়ের সঙ্গেও তার যোগাযোগ নেই।’

অধিনায়ক মেসির সঙ্গে নিজের সম্পর্ক কেমন সেটাও পরিস্কার করেছেন গ্রিজম্যান। তিনি বলেন, ‘হতে পারে (এরিক ওলহাটস) সে আমাদের ড্রেসিংরুমে ঝামেলা তৈরির জন্য এসব বলেছে। তবে ইতিবাচক দিক হলো, মেসি জানে আমি তাকে কতটা সম্মান করি। আমি সব সময় মেসির কাছ থেকে শেখার চেষ্টা করি।’

ফরাসি স্ট্রাইকারের চাচা ইমানুয়েল লোপেজ ও এরিক ওলহাটস ফ্রান্স ফুটবলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘গ্রিজম্যান বার্সায় গিয়ে প্রথমেই ভালো করতে পারবে না, সেটা জানতাম। তাই বলে এত সময় লাগবে বুঝতে পারিনি। পুরো মৌসুমজুড়েই সে লড়াই করলো। মেসির পাশে খেলাটা তার জন্য কঠিন। ন্যু ক্যাম্পে কী হয় তা আমার জানা আছে। মেসি অনুশীলনে একেবারেই খাটতে চায় না। বার্সেলোনার অনুশীলন প্রক্রিয়াটিই বিশেষ কিছু খেলোয়াড়কে খুশি করতে বানানো।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর