× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৫ জানুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

সরকারি ফল প্রকাশ, মিশিগানে বাইডেন বিজয়ী

অনলাইন

হেলাল উদ্দীন রানা, যুক্তরাষ্ট্র থেকে
(১ মাস আগে) নভেম্বর ২৪, ২০২০, মঙ্গলবার, ১২:৫৫ অপরাহ্ন

ব্যাটালগ্রাউন্ড মিশিগান রাজ্যের ইলেক্টোরাল ভোট নিয়ে সপ্তাহব্যাপী নাটকীয়তার অবসান ঘটেছে। সোমবার সারাদিন সভা শেষে রাজ্যব্যাপী ইলেক্টোরাল বোর্ড প্রেসিডেন্ট ভোটের সার্টিফিকেশন প্রদানের মধ্য দিয়ে এই নাটকের অবসান হল। রাজ্যের সার্টিফিকেশন বোর্ডের ৪ সদস্যের মধ্যে ৩-০ ভোটে তা পাস হয়েছে। রিপাবলিকান দুই সদস্য নিজেদের মাঝে সিদ্ধান্ত নিতে বিভক্ত হয়ে পড়ার কারণে রিপাবলিকান সদস্য নর্ম শিন্কলে সার্টিফিকেশন প্রক্রিয়া থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন। তবে এতে করে সার্টিফিকেশন প্রক্রিয়ায় কোন প্রভাব পড়বে না বলে জানা গেছে। ভোট দানে দুইজন ডেমোক্রাট ও দুইজন রিপাবলিকান পার্টির সদস্যের সমন্বয়ে এই বোর্ড গঠিত।

গত মঙ্গলবার থেকেই এই নাটকীয়তার শুরু হয় যখন মিশিগানের সবচেয়ে বড় ওয়েইন কাউন্টির ক্যানভেসার কমিটির দুই সদস্য সার্টিফিকেশন প্রদান নিয়ে গড়িমসি আরম্ভ করেন। এরপরে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প টুইট করে এদের বাহবা দেন। দিন শেষে এই দুই সদস্য সার্টিফিকেশনে সই করলে এদের একজন ক্যানভেসার কমিটির চেয়ারপারসন মনিকা পালমারকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সরাসরি ফোন করে কথা বলার পর এই সদস্যরা আবার বেঁকে বসেন এবং তাঁদের প্রদত্ত ভোট ফিরিয়ে নিতে চান।



আইন সভার প্রভাবশালী সদস্য রাজ্য হাউসের রিপাবলিকান স্পিকার লী চ্যাটফিল্ড ও রাজ্য সিনেটের রিপাবলিকান মেজরিটি লিডার মাইক শিরকীকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প শুক্রবার হোয়াইট হাউসে ডেকে পাঠান। হোয়াইট হাউস থেকে বেরিয়ে যদিও দুই আইন প্রণেতা সাংবাদিকদের বলেছিলেন তারা রাজ্যের জনগনের রায়কে সম্মান জানাবেন এবং যথা নিয়মে ভোটের সার্টিফিকেশন ইস্যু হবে। কিন্তু এরপরেই রিপাবলিকান কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারপারসন রুনা ম্যাকডানিয়েল ও পার্টির স্হানীয় কমিটি সার্টিফিকেশন অন্তত দুই সপ্তাহ দেরী করতে রাজ্যের সার্টিফিকেশন বোর্ডের রিপাবলিকান সদস্যদের উপর চাপ প্রয়োগ অব্যাহত রাখে। এনিয়ে মিশিগানে উত্তেজনা দেখা দেয়। সাবেক রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ও ইউটাহ রাজ্যের বর্তমান প্রভাবশালী সিনেটর মিট রমনি সহ অনেক রিপাবলিকানই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এই প্রয়াসের কঠোর সমালোচনা করে বক্তব্য দেন। এই সার্টিফিকেশন প্রদানের মধ্য দিয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের আরেকটি অপচেষ্টার মৃত্যু ঘটল।

ডেমোক্রাট প্রার্থী প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত জো বাইডেনের পক্ষে এখন পর্যন্ত জর্জিয়া, মিশিগান, ভার্জিনিয়া, ডেলাওয়ার, ভারমন্ট তাদের ভোটের সার্টিফিকেশন প্রক্রিয়া শেষ করেছে। তিনি ৩শ ৬ -এর মধ্যে সরকারি ভাবে এপর্যন্ত ৫১টি ইলেক্টোরাল ভোট লাভ করেছেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সরকারি ভাবে পেয়েছেন ৮০ ইলেক্টোরাল ভোট। সার্টিফিকেশন ইস্যু করার ক্ষেত্রে রাজ্যের আলাদা আলাদা ডেটলাইন থাকলেও ফেডারেল ইলেক্টোরাল কলেজ অথাৎ ইউএস কংগ্রেসের কাছে আগামী ৮ই ডিসেম্বরের মধ্যে রাজ্যগুলো থেকে ভোটের সার্টিফিকেশন পাঠানোর শেষ সময় নির্ধারিত রয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর