× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার

রাবাদার কাছে জৈব-সুরক্ষা বলয় ‘বিলাসবহুল জেলখানা’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৪ নভেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার

জৈব-সুরক্ষা বলয়ে সবকিছুই রয়েছে। তবে থাকতে হয় অনেকটা নিঃসঙ্গ। দক্ষিণ আফ্রিকা পেসার কাগিসো রাবাদার কাছে জৈব-সুরক্ষা বলয় বিলাসবহুল জেলখানার মতোই মনে হচ্ছে।

প্রোটিয়া পেসার জৈব-সুরক্ষা বলয়ের বাইরে সময় কাটাতে পারছেন না গত তিন মাসেরও বেশি। ১১ সপ্তাহের আইপিএল পর্ব শেষে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের জন্য আবারো ঢুকতে হয়েছে সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে। তার আগে সোমবার অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে রাবাদা বেশি কথা বললেন জৈব-সুরক্ষা বলয় নিয়ে। তিনি বলেন, ‘এটা বেশ কঠিন। নিজের স্বাধীনতা থাকে না। তবে দারুণ হোটেলে থাকছি।
ভাল খাবারও পাচ্ছি। অনেকটা বিলাসবহুল জেলখানার মতো। আমি নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করি। এই কঠিন সময়ে বহু মানুষ চাকরি হারিয়েছে। সব ক্ষেত্রেই কঠিন সময় যাচ্ছে। এই সময়েও আমরা আয় করতে পারছি। নিজেদের ভালবাসার কাজটা করে যেতে পারছি। এজন্য নিজেদের কৃতজ্ঞ থাকা উচিত।’
বন্দি ক্রিকেট জীবনে ভালই মানিয়ে নিয়েছেন ২৫ বছর বয়সী এই পেসার। আইপিএলে ৩০ উইকেট নিয়ে হয়েছেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। জৈব-সুরক্ষা বলয়ে নিজেকে চাঙা রাখার একটা কৌশল জানিয়েছেন তিনি, ‘চার দেয়ালের মধ্যে টানা থাকলে মানসিক প্রভাব পড়তে পারে। কিন্তু নিজেকে সব সময় মনে করিয়ে দেই চারপাশে কী হচ্ছে সেসব। খেলা শুরু হয়ে যাওয়ার পর আর নিংসঙ্গ জীবন থাকে না।’

সফরকারী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে সিরিজের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এই সিরিজ দিয়েই করোনা পরবর্তী ক্রিকেট শুরুর পর প্রথমবার মাঠে নামবে প্রোটিয়ারা। শুক্রবার কেপটাউনে হবে প্রথম টি-টোয়েন্টি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর