× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৭ জানুয়ারি ২০২১, বুধবার

ফুলতলায় অপহরণের ১৫ দিনেও উদ্ধার হয়নি স্কুলছাত্রী

বাংলারজমিন

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি
২৭ নভেম্বর ২০২০, শুক্রবার

খুলনায় ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্রী বর্ষা (১৫)কে অপহরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে খানজাহান আলী থানায় বর্ষার দুলাভাইসহ ৫ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত ১৮ই জুন খানজাহান আলী থানাধীন শিরোমণি পূর্বপাড়ার কাজী দিদারুল আলম ওরফে বাপ্পির কন্যা আফসানা মিমি বৃষ্টি (২০)-এর সঙ্গে একই এলাকার মো. রুহুল আমিনের পুত্র এ এস আলফাজ আহম্মেদের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় আলফাজ ওষুধ কোম্পানিতে চাকরি করার কথা বলে। তবে বিয়ের পরে জানা যায় সে ভবঘুরে বেকার। বিভিন্ন অসামাজিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে লিপ্ত। বিষয়টি জানতে পেরে আফসানা মিমি বৃষ্টিকে তার মা বাড়িতে নিয়ে আসে। আলফাজ ফোনে তার স্ত্রী আফসানা মিমি বৃষ্টিকে না পাঠালে তার ছোট শ্যালিকা ফারহানা তামান্না বর্ষার ক্ষতি করবে বলে হুমকি দেয়।
এরপরই গত ১৪ই নভেম্বর সকালে কলেজে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে বাড়ি থেকে বের হলে, শিরোমণি পূর্বপাড়া তেতুলতলা থেকে বর্ষাকে কে বা কারা সিএনজিতে তুলে নিয়ে যায়। বর্ষার পরিবারের সন্দেহ বড় বোনকে শিক্ষা দিতে আলফাজই বর্ষাকে তুলে নিয়ে গেছে।  এ ব্যাপারে বর্ষার মা বাদী হয়ে খানজাহান আলী থানায় জামাই আলফাজ আহম্মেদ (৩০) সহ তার পরিবারের পাঁচজনের নামে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। অপহৃত স্কুলছাত্রী বর্ষাকে উদ্ধারের জন্য তার পিতা দিদারুল আলম র‌্যাব-৬ বরাবর লিখিত আবেদনও করেছেন। অপরদিকে অভিযুক্ত আলফাজের বিরুদ্ধে তার স্ত্রী আফসানা মিমি বৃষ্টি বাদী হয়ে আদালতে যৌতুকের মামলা দায়ের করেছে। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অপহৃত বর্ষাকে উদ্ধার করতে পারেনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর