× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার

মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের উদ্যোগে ‘মাস্ক সপ্তাহ’ চালু

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার থেকে
২৮ নভেম্বর ২০২০, শনিবার

 মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় ‘ঝুঁকি নেয়ার দরকার নাই, মাস্ক ছাড়া গতি নাই’ এই স্লোগান নিয়ে ‘মাস্ক সপ্তাহ’ শুরু করেছে। গতকাল দুপুরে শহরের চৌমুহনা এলাকায় র‌্যালী শেষে ওই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার ফারুক আহমদ। জেলা শহরের ৩টি স্থান সহ মোট ৩০ স্থানে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মঞ্চ করেছে পুলিশ। যারা মাস্ক পরিধান করেননি পুলিশ তাদের ওই মঞ্চে নিয়ে মাস্ক পরার পক্ষে শপথ বাক্য পাঠ করানোর পর মাস্ক পরিধান করে দিচ্ছে। পৃথকভাবে যারা যারা মাস্ক পরিধান করেছেন তাদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন। যানবাহনে করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য নানা স্লোগানযুক্ত স্টিকার লাগানো হয়। পুলিশ সুপার বলেন, করোনাভাইরাস নিয়ে উৎকন্ঠা, ভয় শেষ না হতেই সেকেন্ড ওয়েভ বা দ্বিতীয় ঢেউয়ের কথা উঠছে। কেবল পশ্চিমা দেশেই নয়, বাংলাদেশেও দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলার জন্য সবাইকে প্রস্তুত থাকতে হবে।
উনিশ শতকের গোড়ার দিকে স্পানিশ ফ্লু’র মোট তিনটি ঢেউ বা ওয়েভ দেখা গিয়েছিল। এর মধ্যে দ্বিতীয় ঢেউটা ছিল প্রথমটির তুলনায় মারাত্মক। তাই পুরোপুরি নিশ্চিত বসে থাকার কোনো উপায় নেই। ইতিমধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নতুন করে সংক্রমণের হার বাড়ছে। ওইসব দেশ আবার কঠোর লকডাউনের কথা ভাবছে। বাংলাদেশেও সংক্রমণ আকস্মিক বাড়ছে। এই রকম সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে জেলা পুলিশ, মৌলভীবাজারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। তারই অংশ হিসেবে জনসাধারণকে সচেতন করার লক্ষ্যে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ মাস্ক সপ্তাহ চালু করেছে। জনপ্রতিনিধি থেকে শুরু করে বিভিন্ন সুশীল সমাজের প্রতিনিধিবৃন্দ মঞ্চ থেকে সচেতনতা কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। জেলার বিভিন্নস্থানে একযোগে চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়েছে, যাদের মাস্ক থাকবে না তাদের মাস্ক পরার শপথ করানো হবে, প্রাথমিকভাবে মাস্ক সরবরাহ করা হবে, মাস্ক ছাড়া প্রবেশ নিরুৎসাহিত করা হবে। পরবর্তীতে ক্রমান্বয়ে আরো কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ‘মাস্ক সপ্তাহ’  অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিয়াউর রহমান, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইয়াছিনুল হক, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) পরিমল দে, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (অপারেশন) বদিউজ্জামান, পৌর কাউন্সিলর মনবির রায় মঞ্জু, ফয়ছল আহমদ, নারী কাউন্সিলর শ্যামলী পুরকায়েস্ত সহ অন্যরা। এ ছাড়াও পৃথকভাবে জেলা প্রশাসনের প্রতিদিনের মতো সংক্রামক আইন প্রয়োগে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর