× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৮ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

শেরপুরে অস্ত্রের মুখে গৃহবধূকে ধর্ষণ

বাংলারজমিন

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি
৩০ নভেম্বর ২০২০, সোমবার

শেরপুরে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করার পর এক গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এদিকে ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে গত শনিবার দুপুরে শেরপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। দায়েরকৃত মামলায় শেরপুর উপজেলার ২নং মডেল গাড়ীদহ ইউনিয়নের মহিপুর কলোনি পিসি ভাটা এলাকার আফছার আলীর লম্পট পুত্র সাইফুল ইসলাম (৪২) কে অভিযুক্ত করা হয়েছে। এদিকে ধর্ষণের ঘটনার পর থেকে পালিয়ে থাকা সাইফুলকে শেরপুর থানার পুলিশ গ্রেপ্তার করতে পারেনি। মামলার সূত্র জানায়, গত ২৭শে নভেম্বর রাত সাড়ে ১১টায় শেরপুর উপজেলার ২নং গাড়িদহ ইউনিয়নের মহিপুর কলোনিপাড়া গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন বাড়িতে ওই গৃহবধূ প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে শয়ন ঘর থেকে বের হয়ে আসে। এসময় আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা ওই লম্পট সাইফুল অস্ত্রের মুখে গৃহবধূকে জিম্মি করে। এরপর তার মুখ বেঁধে পাশের রাজিব মিয়ার বসত বাড়িতে একঘরে নিয়ে যায়। সেখানে গৃহবধূকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করা হয়।
এসময় গৃহবধূর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে লম্পট সাইফুল সেখান থেকে সটকে পালিয়ে যায়। শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত এস,এম আব্দুল কালাম আজাদ ওই ধর্ষণের অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করেন। তিনি এবিষয়ে শেরপুর থানায় মামলা নেয়া হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর