× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার

যমুনায় নিখোঁজ ৩ জুয়াড়ির লাশ উদ্ধার দুই পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার

বাংলারজমিন

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি
৩০ নভেম্বর ২০২০, সোমবার

জুয়ার আসর থেকে যমুনায় নিখোঁজ ৩ জোয়াড়ির লাশ নদী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার সকাল ১১টার দিকে যমুনা নদীর পৃথক স্থানে ভেসে ওঠা ৩টি লাশ উদ্ধার করা হয়। বৃহস্পতিবার রাতে জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার পিংনা ইউনিয়নের চর বাশুরিয়া এলাকার যমুনা নদীর দুর্ঘম চরাঞ্চলে জেগে ওঠা বালুচরে এ নিখোঁজের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক দুই পুলিশকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। স্থানীয় ও নিহতদের পরিবার সূত্রে জানা যায়, সরিষাবাড়ী উপজেলার পিংনা ইউনিয়নের চর বাশুরিয়া এলাকায় যমুনা নদীর দুর্গম চরাঞ্চলে জেগে ওঠা বালুর তীরে দীর্ঘদিন ধরে জুয়ার আসর চলছিল। জুয়াড়িরা তারাকান্দি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের সাথে যোগাযোগ রেখে জুয়া চালিয়ে আসছিল। তিন জেলার সীমান্তবর্তী জামালপুর, সিরাজগঞ্জ ও টাঙ্গাইলের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রায় শতাধিক জুয়াড়ি প্রতিদিন দুপুর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত কোটি টাকার জুয়া খেলার আসর বসতো। জুয়ার আসরে আধিপত্য বিস্তার ও টাকার ভাগ-বাটোয়ারাকে কেন্দ্র করে গত বৃহস্পতিবার রাতে জুয়ারিদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বাধে।
সংঘর্ষে প্রায় ১০ জন আহত হয়। এদেরমধ্যে ঘটনাস্থলেই তিন জুয়াড়ি নিখোঁজ হয়ে যায়। পরে নিখোঁজ জুয়াড়ি সরিষাবাড়ী উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের পাখিমারা গ্রামের ছানোয়ার হোসেন ছানু (৪০), পার্শ্ববর্তী টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার শাখারিয়া গ্রামের হাফিজুর রহমান খাঁন (৪৫) ও ভুয়াপুর উপজেলার গোবিন্দাসী গ্রামের ফজলুল হক ফজল মিয়ার (৪০) লাশ ভেসে উঠে। এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু মো. ফজলুল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ‘জুয়ার আসরে সংঘর্ষের ঘটনায় নিখোঁজ তিনজনের লাশ যমুনা নদী থেকে উদ্ধার হয়েছে। জুয়ার আসরের সঙ্গে সম্পৃক্ততার সন্দেহে এসআই ইউনুস আলী ও পুলিশ সদস্য মনির উদ্দিনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর