× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২০ জানুয়ারি ২০২১, বুধবার

৩ সন্তান, জামাই, আইনজীবীকে দায়মুক্তির পথ খুঁজছেন ট্রাম্প!

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) ডিসেম্বর ৩, ২০২০, বৃহস্পতিবার, ২:০২ পূর্বাহ্ন

ক্ষমতা থেকে বিদায় নেয়ার আগে তিন সন্তান, জামাই জারেড কুশনার ও ব্যক্তিগত আইনজীবী রুডি গিলিয়ানিকে সব রকম দায়মুক্তির সুবিধা নিশ্চিত করে যেতে চাইছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। নিউ ইয়র্ক টাইমস সহ মার্কিন বিভিন্ন মিডিয়ায় এ খবর প্রকাশিত হয়েছে বলে খবর দিয়েছে অনলাইন আল জাজিরা। এতে বলা হয়, ক্ষমতা থেকে সরে যাওয়ার পর নিজের সন্তানদের ও জামাই জারেড কুশনারের বিরুদ্ধে ভবিষ্যতে নানা অনিয়মের তদন্ত হতে পারে। এ নিয়ে বেশ উদ্বিগ্ন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তিনি মনে করছেন আসন্ন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের এটর্নি জেনারেল টার্গেট করতে পারেন ট্রাম্পের ছেলে ডনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র, এরিক ট্রাম্প, ইভানকা ট্রাম্প, জামাই জারেড কুশনার ও আইনজীবী রুডি গিলিয়ানিকে। তাই তাদেরকে ভবিষ্যতেও সাধারণ ক্ষমার আওতায় আনার বিষয় নিয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার উপদেষ্টাদের সঙ্গে আলোচনা করছেন। এর মধ্য দিয়ে ওইসব ব্যক্তিকে ফেডারেল চার্জ থেকে সুরক্ষিত রাখতে চান তিনি। তবে এমন রিপোর্টকে টুইটারে ফেক নিউজ বা ভুয়া খবর বলে মন্তব্য করেছেন রুডি গিলিয়ানি।

রক্ষণশীলদের টক শো উপস্থাপক সিন হ্যানিটির সঙ্গে রয়েছে প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক। তিনিই সোমবার এ বিষয়টিকে সামনে আনেন। বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার পুরো পরিবার ও নিজেকে সাধারণ ক্ষমার আওতায় নেয়ার পথ খুঁজছেন। কারণ, তিনি বা তারা মনে করছেন, তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ আনা হতে পারে। রুডি গিলিয়ানি বর্তমানে ফেডারেল প্রসিকিউটরদের তদন্তের অধীনে আছেন। সেই তদন্ত হচ্ছে ইউক্রেন ইস্যুতে। অভিযোগ আছে, তিনি ও তার দুই সহযোগী ইউক্রেন সরকারকে বর্তমানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত জো বাইডেন ও তার ছেলে হান্টার বাইডেন সম্পর্কে ক্ষতিকর তথ্য সরবরাহের জন্য ইউক্রেন সরকারকে চাপ দিয়েছিলেন।
এখানে উল্লেখ্য, প্রেসিন্সিয়াল পারডন বা প্রেসিডেন্টের ক্ষমতার আওতায় সাধারণ ক্ষমায় শুধু ফেডারেল চার্জ বা অভিযোগ ও শাস্তি অন্তর্ভুক্ত। যারা এমন ক্ষমা পান তারা কিন্তু বিভিন্ন রাজ্যে এই সুবিধা পান না। স্থানীয় পর্যায়ের তদন্ত ও অভিযোগের মুখোমুখি হতে পারেন তারা। বর্তমানে ম্যানহ্যাটান ডিস্ট্রিক্ট এটর্নি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ব্যবসা নিয়ে একটি অনুসন্ধান করছে। এতে শুধু ট্রাম্পই ফাঁদে পড়ার ঝুঁকিতে নেই। একই সঙ্গে ঝুঁকিতে আছেন তার কন্যা ইভানকা ট্রাম্পও।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Shahid
৩ ডিসেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৯:০৪

ভাল কাজ করলে দায়মুক্তির আবদার কেন?

Kazi
৩ ডিসেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৩:১৯

Indemnity is not required if no body committed crime. It indicates Trump family members are criminals, so he want to grant indemnity.

অন্যান্য খবর