× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৮ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

ধলাই নদীর করাল গ্রাসে বিলীন হচ্ছে কোম্পানীগঞ্জের চাঁনপুর গ্রাম

বাংলারজমিন

কোম্পানীগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধি
৪ ডিসেম্বর ২০২০, শুক্রবার

 সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা সদরের নিকটবর্তী শতাব্দী প্রাচীন জনপদ চাঁনপুর গ্রাম ভয়াবহ নদীভাঙনের কবলে পড়ে নিশ্চিহ্ন হওয়ার দ্বারপ্রান্তে উপনীত হয়েছে। ইতিমধ্যে খরস্রোতা ধলাই নদীর করাল গ্রাসে গ্রমিটির দুই-তৃতীয়াংশ এলাকা বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙনরোধে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গৃহীত না হলে আগামী বছর পাহাড়ি ঢলে পুরো গ্রাম নিশ্চিহ্ন হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে। সম্ভাব্য দুর্যোগের আশঙ্কায় গ্রামটির দুই হাজারের অধিক মানুষ উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন। চাঁনপুর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সদরের পার্শ্ববর্তী ধলাই নদী তীরবর্তী জনপদ। শত বছরের প্রাচীন এ গ্রামে দুইশতাধিক পরিবারের বাস। দুই হাজারের  অধিক অধিবাসীর প্রায় সবাই কৃষিজীবী। বংশ পরম্পরায় কৃষিকে উপজীব্য করে তারা জীবিকা নির্বাহ করে আসছিলেন।
একদিকে খরস্রোতা ধলাই নদী এবং অপরদিকে দিগন্ত বিস্তৃত হাওরের কোল ঘেঁষে গড়ে ওঠা ছবির মতো সুন্দর এ গ্রামটি নদী ভাঙনের কবলে পড়ে নিশ্চিহ্ন হতে চলেছে। ইতিমধ্যে গ্রামটির অর্ধশতাধিক ঘরবাড়ি উপসনালয় মক্তব নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। আরো অর্ধশতাধিক ঘরবাড়ি মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। ইতিমধ্যে ভাঙনে  সর্বশ্বান্ত হয়ে কুড়িটিরও অধিক পরিবার গ্রাম ছেড়ে অন্যত্র চলে গেছেন। গত বছরে গ্রামটির একমাত্র চলাচলের রাস্তাটি বিলীন হয়ে যাওয়ায় যোগাযোগের ক্ষেত্রে গ্রামবাসী প্রায় অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন। গ্রামের পঞ্চাশোর্ধ অধিবাসী সামসুল আলম জনান, তার পৈত্রিক ভিটেমাটির সিংহভাগ নদীতে বিলীন হয়েছে, তড়িৎ ব্যবস্থা না নিলে অচিরেই পুরো জনপদ বিলীন হয়ে যেতে পারে। এলাকার যুবক মাসুদরানা বলেন, ধলাইয়ের স্বচ্ছ জল ঘেরা হাওর বেষ্টিত সুন্দর এ গ্রামটির প্রকৃতিক দৃশ্য ছবির মতো। অত্যন্ত সুন্দর এ জনপদটি ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করতে হবে। সম্প্রতি গ্রামবাসী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী বরাবর গ্রামটি ভাঙনের কবল থেকে রক্ষার জন্য আবেদন করেন। এছাড়া স্থানীয় সংসদ সদস্য ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ সংশ্লিষ্টদের গ্রামটি সুরক্ষায় পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করেন। এরই প্রেক্ষিতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের একটি প্রতিনিধি দল সরজমিন এলাকা পরিদর্শন করেছেন বলে জানা গেছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে চাঁনপুর গ্রামটির ভাঙন রোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের ব্যাপারে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখা হচ্ছে বলে জানালেন ইউএনও সুমন আচার্য্য। বর্ষা এলেই পাহাড়ি ঢলে পরিপূর্ণ হয়ে যায় ¯্রােতস্বিনী ধলাই। সেই ঢলের তা-বে বিলীন হয়  তীরবর্তী জনপদ। এমন তা-বের কবলে পড়ে ভিটেমাটি হারিয়ে সর্বস্বান্ত হওয়ার আশঙ্কা চাঁনপুর গ্রামবাসীকে উদ্বেগাকুল করে তুলেছে।
 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর