× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার
পদ্মা সেতু রেল প্রকল্প

চীন নির্মিত স্লিপার ফ্যাক্টরিতে উৎপাদন শুরু

শেষের পাতা

মানবজমিন ডেস্ক
৫ ডিসেম্বর ২০২০, শনিবার

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় পদ্মা সেতুর রেল সংযোগ প্রকল্পের স্লিপার ফ্যাক্টরির উৎপাদন শুরু হয়েছে। চীন নির্মিত এই ফ্যাক্টরি থেকে উৎপাদিত স্লিপার ব্যবহার করা হবে দেশের দীর্ঘতম পদ্মা সেতুর রেল প্রকল্পে। এই সেতুটিও নির্মাণ করছে চীনা কোম্পানি। চীনা বার্তা সংস্থা শিনহুয়ার খবরে বলা হয়েছে, বিশ্বসেরা প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে গ্রুপ লিমিটেড বা সিআরইসি বাংলাদেশের প্রথম স্লিপার ফ্যাক্টরিটি নির্মাণ করে। ২২ আগস্ট এর কাজ সম্পন্ন হয়। তখন থেকেই এটি ছোট পরিসরে উৎপাদন শুরু করলেও পুরোদমে উৎপাদনে যায় গত বুধবার। এদিন এই ফ্যাক্টরির উদ্বোধন করেছেন রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। এরপর তিনি এটি পরিদর্শন করেন।
পরিদর্শনকালে মন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, বাংলাদেশ রেলওয়ের পরিচালক শামসুজ্জামান, পিবিআরএলপি প্রকল্প পরিচালক ফখরুদ্দিন আহমেদ চৌধুরী ও সিআরইসি’র প্রকল্প পরিচালক ওয়াং কুনসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।
পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্প বাংলাদেশের মধ্য পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত। এই রেলপথ নির্মাণের কাজ শেষ হলে এটি বাংলাদেশের পূর্ব ও পশ্চিমাঞ্চলকে সংযুক্ত করবে। রেলপথটি ঢাকা স্টেশন থেকে শুরু হয়ে মাওয়া, পদ্মা বহুমুখী সেতু এবং ভাঙ্গা হয়ে যশোরে গিয়ে শেষ হবে। চীন নির্মিত এই কারখানা থেকে প্রতিদিন গড়ে ৫শ’রও বেশি স্লিপার তৈরি করা যাবে। পদ্মা সেতুর জন্য এখান থেকে ৩ লাখ ৭০ হাজার স্লিপার তৈরি করা হবে। এ উপলক্ষে বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং এক বার্তায় সিআরইসিকে ধন্যবাদ জানান। এ ছাড়া সিআরইসির প্রকল্প পরিচালক ওয়াং কুন জানান, বাংলাদেশ রেলওয়ের অনুমতি সাপেক্ষে বর্তমান প্রতিকূল পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক প্রকিউরমেন্ট অনিশ্চয়তা দূর করতে, গুণগতমানের স্লিপার প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করতে, দ্রুততম সময়ের মধ্যে স্লিপার তৈরি ও সরবরাহ করতে, নির্মাণ ব্যয় কমাতে এবং চীন থেকে অত্যাধুনিক ও উন্নতমানের প্রযুক্তি পণ্য আমদানির জন্য সিআরইসি স্লিপার ফ্যাক্টরিটি তৈরি করেছে। স্লিপার ফ্যাক্টরিটি স্লিপার-লেইং বেজের অংশ। ওয়াং কুন বলেন, স্লিপার-লেইং বেজটিতে বর্তমানে দুইশ’ স্থানীয় কর্মী কাজ করছেন, যারা সিআরইসি’র সিনিয়র চীনা বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে পেশাদার প্রশিক্ষণ লাভ করেছেন। চলতি বছরের ২২শে আগস্ট স্লিপার ফ্যাক্টরিটি ছোট পরিসরে উৎপাদন শুরু করে। এখন পর্যন্ত ফ্যাক্টরিটি খুব ভালোভাবে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছে এবং এখান থেকে উৎপাদিত স্লিপারগুলো বেশ উন্নতমানের।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর