× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার

একদিনে সড়কে ঝরলো ২২ প্রাণ

শেষের পাতা

বাংলারজমিন ডেস্ক
৫ ডিসেম্বর ২০২০, শনিবার

সারা দেশে গতকাল সড়ক দুর্ঘটনায় কমপক্ষে ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে মানিকগঞ্জে বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষে একই পরিবারের ৬ জনসহ ৭ জন, টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে ৬ জন, সখীপুরে ১, গাজীপুরের কালীগঞ্জে ২, মাগুরায় ৩, ফরিদপুরে ১, ভোলায় ১ ও নাটোরে ট্রাকের ধাক্কায় ১ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এসব দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে আরো অনেকে। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো রিপোর্টে-

স্টাফ রিপোর্টার, মানিকগঞ্জ থেকে জানান, মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার মুলকান্দি এলাকায় যাত্রীবাহী বাস ও অটোরিকশার সংর্ঘষে একই পরিবারের ৬ জনসহ ৭ যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে।  নিহতরা হলেন- হরে কৃষ্ণ (৫৫), তার মা খুকি বালা (৮০), ছেলে গোবিন্দ (৩৫), তার স্ত্রী ববিতা (২০), মেয়ে রাধে (৩) ও হরের পিসতুতো ভাই রাম প্রসাদ (৩৫) ও অটোচালক জামাল (৩৫)। নিহতের বাড়ি টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার চাষাভাদ্রা গ্রামে। নিহত অটোচালকের বাড়ি মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার সমেতপুর গ্রামে।

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি জানান, টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে থেমে থাকা একটি যাত্রীবাহী বাসে সবজিভর্তি ট্রাকের ধাক্কায় ৬ জন নিহতের ঘটনা ঘটেছে। নিহতদের মধ্যে ৪ জন পুরুষ, ১ জন নারী ও ১ জন শিশু রয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরো ৫ জন।
গতকাল ভোর ৭টার দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের কুরনী-ইচাইল অংশে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে বলে জানিয়েছেন গোড়াই হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোজাফফর হোসেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহত দুইজনের পরিচয় পাওয়া গেছে তারা হলেন- রংপুর জেলার পীরগঞ্জ থানার ধললাকান্দি গ্রামের জয়নাল হোসেনের ছেলে মো. আশরাফুল ইসলাম (৩৪) ও একই এলাকার পভেজ আলীর ছেলে মো. সিরাজুল ইসলাম (৩১)।

এদিকে সখীপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি জানান, টাঙ্গাইলের সখীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় সিরাজুল ইসলাম (৫৯) নামের এক বৃদ্ধ পথচারীর মৃত্যু হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। সে উপজেলার বহুরিয়া গ্রামের মৃত দানেজ আলীর ছেলে।

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি জানান, গাজীপুরের কালীগঞ্জে অজ্ঞাত গাড়ি চাপায় ঘটনাস্থলেই দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় টঙ্গী-ঘোড়াশাল বাইপাস সড়কের বাঘেরপাড়া এলাকায় দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহতরা হলেন- কালীগঞ্জ পৌর ৪নং ওয়ার্ড মুনসেফপুর গ্রামের তরব আলী খন্দকারের ছেলে নুরুল ইসলাম (৪০) ও অপরজন হলেন একই উপজেলার মুক্তারপুর ইউনিয়নের সাওরাইদ এলাকার মাল্লার বাড়ির মোস্তফার ছেলে মোকাররম (৩২)।

মাগুরা প্রতিনিধি জানান, মাগুরায় সবজি’র ট্রাক উলটে স্বর্ণলতা (২৫) ও সাথী মজুমদার নামে দুই গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। স্বর্ণলতা শালিখা উপজেলার থৈপাড়া গ্রামের মিলটন বিশ্বাসের স্ত্রী। অপর গৃহবধূ সাথী মজুমদারকে গুরুতর আহত অবস্থায় মাগুরা সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ঢাকায় রেফার্ড করেন। ঢাকায় নেয়ার পথে তিনি মারা যান। গতকাল বিকালে মাগুরা-ফরিদপুর সড়কের রামনগর ঠাকুরবাড়ি এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।  অন্যদিকে মহম্মদপুর উপজেলার নড়াইল-রাজাপুর সড়কের রাজপুর বাজার এলাকায় ইজিবাইকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী আহাদ আলী নামের এক পল্লী চিকিৎসক আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে মাগুরা সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঘোষণা করেন।
ফরিদপুর প্রতিনিধি জানান, ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় এক শিশু নিহত হয়েছে। গতকাল বিকালে উপজেলার বানা বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ভোলা প্রতিনিধি জানান, ভোলার বাংলাবাজারে একটি মালবাহী ট্রলির চাপায় নিজাম উদ্দিন মিরন (৪০) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় মোটরসাইকেলে থাকা আরো দুইজন আহত হয়েছেন। গতকাল দুপুরে বাংলাবাজার পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সামনে ভোলা-চরফ্যাশন সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, মিরন তার মোটরসাইকেলে আরো দুইজনসহ বোরহানউদ্দিন থেকে ভোলা যাচ্ছিলেন। ভোলা-চরফ্যাশন সড়কের বাংলাবাজার পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সামনে বিপরীত দিক থেকে একটি মালবাহী ট্রলির সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কা লাগে। এ সময় মোটরসাইকেল উল্টে ঘটনাস্থলে তিনি নিহত হন।

নাটোর প্রতিনিধি জানান, নাটোরের হয়বতপুরে রাস্তা পার হওয়ার সময় আলাল ফকির নামে এক পথচারী নিহত হয়েছে। নাটোর ঝলমলিয়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজওয়ানুল ইসলাম স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, আলাল ফকির ফজর নামাজ শেষে চা খাওয়ার জন্য রাস্তা পার হওয়ার সময় একটি দ্রুতগতির ট্রাক  ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা তাকে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। তার প্রচুর রক্তক্ষরণ হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। রামেক-এ নেয়ার প্রস্তুতিকালে তিনি সদর হাসপাতালের সামনেই মারা যান। নিহত আলাল ফকির সদর উপজেলার হয়বতপুর এলাকার মৃত মাসুম ফকিরের ছেলে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর