× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

লাঠিপেটায় ছত্রভঙ্গ ভাস্কর্যবিরোধী মিছিল

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
৫ ডিসেম্বর ২০২০, শনিবার

ভাস্কর্যবিরোধী মিছিলকে কেন্দ্র করে পুলিশ ও মুসল্লিদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। গতকাল জুমার নামাজের পর পুরানা পল্টন এলাকায় এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে পুলিশ লাঠিপেটা করে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। বায়তুল মোকাররম মসজিদ সংলগ্ন এলাকায় সকাল থেকেই ছিল বিপুল পুলিশের উপস্থিতি। জুমার নামাজ শেষে মুসল্লিরা বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেট দিয়ে বিচ্ছিন্নভাবে বের হচ্ছিলো। এ সময় মসজিদ থেকে শৃঙ্খলা বজায় রেখে বের হতে সহযোগিতা করছিলো পুলিশ। এ সময় যুবকদের একাংশ মসজিদের সিঁড়ির ওপর অবস্থান নেয়। পুলিশের বিশেষ শাখার একজন সদস্য সেখান থেকে তাদের চলে যেতে বললে তারা তাৎক্ষণিকভাবে ‘নারায়ে তাকবির’ স্লোগান দিয়ে উত্তর গেটের সামনে জড়ো হয়।
কিছুক্ষণের মধ্যেই  রাস্তায় বের হয়ে বিক্ষোভ শুরু করে তারা। গেটে পুলিশ বাধা দেয়। পুলিশের বাধা ডিঙিয়ে বিপুলসংখ্যক মুসল্লি পুরানা পল্টন মোড়ের দিকে এগিয়ে যায়।  
বিক্ষোভ মিছিলটি পুরানা পল্টন মোড়ে পৌঁছালে ব্যারিকেড দেয় পুলিশ। এ সময় পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। একপর্যায়ে পুলিশের ব্যারিকেড ডিঙিয়ে নয়াপল্টনের দিকে যেতে চেষ্টা করে মিছিলটি। এ সময় মিছিলের পেছনে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়ে মুসল্লিরা। অল্প সময়ের মধ্যেই মুসল্লিরা বিভিন্ন গলি দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। সংঘর্ষে বেশক’জন মুসল্লি আহত হয়।
গতকালের কর্মসূচিতে কোনো সংগঠনের ব্যানারে ছিল না। পুলিশের মতিঝিল জোনের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার এনামুল হক সাংবাদিকদের বলেন, আগে থেকে অনুমতি ছাড়া যেকোনো কর্মসূচির বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা ছিল। এরপরও জুমার নামাজ শেষে একদল মুসল্লি বিক্ষোভ মিছিল বের করেছেন। শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে পুলিশ তৎপর ছিল বলে জানা গেছে।  
এর আগে সকাল ১১টা থেকেই নয়াপল্টন, পুরানা পল্টন, কাকরাইল মোড়সহ বায়তুল মোকাররম সংলগ্ন এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের চারপাশে কঠোর নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়েছিল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর