× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার

বৈদ্যুতিক ফাঁদে দুই কৃষকের মৃত্যু

বাংলারজমিন

হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি
৬ ডিসেম্বর ২০২০, রবিবার

ধান ক্ষেতে বৈদ্যুতিক ফাঁদ পেতে রাখা তারে জড়িয়ে হতদরিদ্র মোহাম্মদ মিজান (৪৫) ও নজরুল ইসলাম (৪০) নামের দুই কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার চৌধুরীহাটের পশ্চিমে জঙ্গল দক্ষিণ পাহাড়তলী ওয়ার্ডের সৈয়দের ঘোনা সংলগ্ন মান্নান কোম্পানির ধান ক্ষেতের উত্তর-পশ্চিম পাশে এ ঘটনাটি ঘটে। নিহত কৃষক মিজান উক্ত ওয়ার্ডের ঠাণ্ডাছড়ি এলাকার শফি মেম্বারের বাড়ির মৃত জাহাঙ্গীর আলমের পুত্র এবং নজরুল ইসলাম একই এলাকার মৃত মোহাম্মদ ইউসুফের পুত্র। শুক্রবার রাতে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে হাটহাজারী মডেল থানা পুলিশ। নিহতদের পরিবারের সদস্যরা তাদের অন্যতম উপার্জনক্ষম হতদরিদ্র দুই কৃষককে হারিয়ে অনেকটা দিশাহারা হয়ে পড়েছেন। উভয়ের পরিবারে চলছে শোকের মাতম। তাদের পরিবারের দাবি পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে বৈদ্যুতিক তারের ফাঁদ দিয়ে দুজনকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় হাটহাজারী মডেল থানায় নিহত কৃষক মিজানের স্ত্রী বাদী হয়ে একটি মামলা রুজু করেছেন।
থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে দুই কৃষক মিজান ও নজরুল একসঙ্গে দক্ষিণ পাহাড়তলী ওয়ার্ডের সৈয়দের ঘোনা মনসুরের জমিতে কৃষি কাজ করার জন্য ঘর থেকে বের হন। এরমধ্যে ঐ এলাকায় পেতে রাখা বৈদ্যুতিক ফাঁদে জড়িয়ে প্রাণ হারিয়ে জমিতে পড়ে থাকে ওই দুই কৃষক। ওই সময় রোকসানা বেগম নামে এক মহিলা তাদের মরদেহ দেখতে পেয়ে বিষয়টি স্থানীয় লোকজন ও তাদের পরিবারের সদস্যদের অবহিত করেন।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে হাটহাজারী মডেল থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রাজিব শর্মা মানবজমিনকে বলেন, স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে শুনে দুই কৃষকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে দুই কৃষকের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, বৈদ্যুতিক ফাঁদে জড়িয়ে দুই কৃষকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।
এ ঘটনায় নিহতের স্বজনরা একটি মামলা রুজু করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর