× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

সাভারে নদী রক্ষার দাবিতে বিক্ষোভ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার থেকে
৬ ডিসেম্বর ২০২০, রবিবার

সাভারে নদী রক্ষার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। এ সময় বংশী নদী দখল ও দূষণকারীদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে অংশগ্রহণকারীরা। নদী ও পরিবেশ উন্নয়ন পরিষদ, সাভার ঢাকা এর আয়োজনে গতকাল দুপুরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের থানা বাসস্ট্যান্ড, বঙ্গবন্ধু চত্বর ও বংশী নদীর তীরবর্র্তী এলাকায় এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। মানববন্ধন শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল করেন। এ সময় আয়োজিত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিলে একাত্মতা প্রকাশ করেন উপজেলার তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ফখরুল আলম সমর। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সাভার নদী ও পরিবেশ উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শামসুল হকসহ বিভিন্ন পরিবেশবিদসহ জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। র‌্যালিটি মহাসড়ক প্রদক্ষিণ করে শাখা সড়ক হয়ে সাভার বাজারের বংশী নদীর তীরে গিয়ে শেষ হয়। এ সময় বংশী নদীতে ট্রলারে উঠে একই দাবিতে ‘নৌকা মানববন্ধন’ কর্মসূচিতে অংশ নেয় সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বিভিন্ন প্রভাবশালী মহল সাভারের ঐহিত্যবাহী বংশী নদীর তীর দখল করে দোকানপাট ও ঘরবাড়িসহ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করে নদীর পানি প্রবাহে বাধা সৃষ্টি করছে। এতে করে নদীসহ পরিবেশ বিপর্যস্ত হচ্ছে। এসব দখলদারদের সামাজিকভাবে প্রতিহত করার পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছে। মানববন্ধনে নদী ও পরিবেশ উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি কৃষিবিদ ড. রফিকুল ইসলাম মোল্লা বলেন, ‘সাভার বাজারের তীর দিয়ে সব জায়গা দখল করে বাণিজিক কাজে ব্যবহার হচ্ছে। বংশী নদীর পূর্ব পাড়ের তীরবর্তী এলাকাগুলো সবটাই দখলে। ধলেশ্বরী নদীর ব্রিজ থেকে বংশী নদীর নয়ারহাট ব্রিজ পর্যন্ত বাজারের কাছে তীরবর্তী এলাকাগুলো পুরোপুরি দখলে। এ ছাড়া ইপিজেড এলাকার কারখানাগুলো ইটিপি ব্যবহার না করে বিষাক্ত বর্জ্য নদীতে ফেলে দূষণ করছে। তিনি আরো বলেন, আমাদের প্রচেষ্টায় এবং সরকারিভাবে ঢাকা জেলা প্রশাসন দুইবছর আগে ৬৫ জন দখলকারীর তালিকা প্রস্তুত করেছিল। আমরা নদী কমিশনের চেয়ারম্যানকে বলেছি, এই তালিকায় আমরা স্যাটিসফাইড না। তালিকাভুক্ত ৬৫ জনই যে দখল করছে তা না। এই সংখ্যা আরো তিনগুণ হবে। নদীর গতিপথ ঠিক রাখার জন্য আমরা পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশের পাশাপাশি তালিকাভুক্ত ৬৫ জনকে উচ্ছেদের দাবি জানাচ্ছি। সংগঠনের সহ-সভাপতি পারভিন ইসলাম বলেন, নদী মাতৃক দেশ হওয়ায় যুগ যুগ ধরে বাংলাদেশকে বাঁচিয়ে রাখছে এবং পরিবেশ সুরক্ষায় নদীর ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু আজকাল আমরা দেখছি বাংলাদেশের সেই নদী দূষণের ফলে মানুষের জীবন বিপর্যস্ত হচ্ছে। সাভার উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান রোকেয়া হক বলেন, যারা নদী দখল করছে তাদেরকে উচ্ছেদ করতে হবে এবং যারা দূষণ করছে তাদেরকে শাস্তির আওতায় আনতে হবে। মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল শেষে বংশী নদীতে নৌকাযোগে একটি র‌্যালীর আয়োজন করা হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর