× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে শিক্ষিকার অনশন

বাংলারজমিন

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি
৬ ডিসেম্বর ২০২০, রবিবার

হয় বিয়ে, না হয় আত্মহত্যা- এমন প্রত্যয় নিয়ে ঢাকার ধামরাইয়ে এক শিক্ষিকা তার প্রেমিক নৌবাহিনীর এক সদস্যের বাড়িতে ৭ দিন ধরে অবস্থান করছেন। এতে প্রেমিক আমির হোসেন বাড়ি থেকে উধাও হয়ে গেছে। আমির হোসেনে অভিভাবকরা বিয়ের আশ্বাস দিয়ে কালক্ষেপণ করছেন বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। বারবার দেন-দরবার করেও বিয়ের ব্যবস্থা করতে পারছে না কেউ। এদিকে আমির হোসেন তাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছে ওই শিক্ষিকা। শনিবার  সকালে সরজমিন গিয়ে জানা গেছে, ধামরাইয়ের নান্নার গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে নৌবাহিনীর সদস্য আমির হোসেন প্রায় আড়াই বছর ধরে পাশের লাড়ুয়াকুণ্ড গ্রামের এক কিন্ডারগার্ডেন স্কুলের শিক্ষিকার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। তাকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে গভীর  সম্পর্কও করে। ছুটিতে এসে বিয়ে করবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন আমির হোসেন।
গত কয়েকদিন আগে ১৫ দিনের ছুটি নিয়ে বাড়িতে আসেন আমির হোসেন। এরপর গত রোববার তার প্রেমিকাকে নিয়ে বিভিন্ন স্থানে বেড়াতে যান। ওইদিন বিয়ে করার কথা বললে তাকে ধামরাইয়ের জয়পুরা এলাকায় একটি দোকানে বসিয়ে রেখে বাড়িতে চলে যান আমির হোসেন। এরপর তিনি মোবাইল ফোন বন্ধ করে দেন। পরে নিরুপায় হয়ে ওইদিন বিকালে আমির হোসেনের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের দাবিতে অবস্থান করতে থাকেন শিক্ষিকা। এরপর বাড়ি থেকে আমির হোসেন চলে যান। আমির হোসেনের বাবা মজিবর রহমান ও চাচাতো ভাই আব্দুল হালিম জানান, আমির হোসেনের মোবাইল ফোন বন্ধ রাখায় তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছি না।   মেয়ের বাবাসহ কয়েকজন অভিযোগ করে বলেন, বিয়ে করার মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে আব্দুুল হালিম তার চাচাতো ভাই আমির হোসেনকে অন্যত্র সরিয়ে রেখেছে। এদিকে বিয়ের দাবিতে অবস্থান করা শিক্ষিকা জানান, আমাকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে আমার সর্বনাশ করেছে আমির হোসেন। এখন সে আমাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যা করা ছাড়া আমার কোনো উপায় থাকবে না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর