× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১ মার্চ ২০২১, সোমবার

ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০২০ এর প্ল্যাটিনাম স্পন্সর ইভ্যালি

তথ্য প্রযুক্তি


৮ ডিসেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার

আসছে ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০২০’ এর প্ল্যাটিনাম স্পন্সর হয়ে ছেদেশিয় ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস ইভ্যালি ডট কম ডট বিডি। সীমিত পরিসরে ভৌত কাঠামো আর ভার্চুয়াল আয়োজনের সংমিশ্রণে সপ্তম বারের মতো আয়োজিত হতে যাওয়া ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড এর সাথে প্রথম বারেরমতো যুক্ত হলো ইভ্যালি।

মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিতকরা হয় ইভ্যালির পক্ষ থেকে। এতে বলা হয়, প্রথম বারেরমতো ভার্চুয়াল প্রযুক্তিকে গুরত্ব দিয়ে আয়োজিত হতে যাওয়া এই আয়োজনে যুক্ত হলো ইভ্যালি। প্ল্যাটি নাম স্পন্সর হিসেবে এই আয়োজনে থাকছে প্রতিষ্ঠানটি। একই সাথে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের উদ্বোধনী এবং সমাপনী অনুষ্ঠানের ফুড পার্টনার ইভ্যালির সহযোগী প্রতিষ্ঠান ই-ফুড।

এলক্ষ্যে সম্প্রতি রাজধানীর আগারগাঁস্থ আইসিটিটাওয়ারে ইভ্যালি এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) এর মধ্যে এক সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। বিসিসিরপরিচালক (প্রশিক্ষণ ও উন্নয়ন) মোহাম্মদ এনামুলকবির এবং ইভ্যালির পরিচালক (কারিগরি) মো. মামুনুর রশীদ নিজ নিজ সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন।

এসময় ভিডিও এর মাধ্যমে প্রধান অতিথি হিসেবে যুক্ত হন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রীজুনাইদ আহমেদ পলক। ডিজিটালওয়ার্ল্ড-২০২০ এর সফলতাকামনাকরে এবং ইভ্যালির প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে পলক বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার প্রধান মন্ত্রীজননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশের আর্কিটেক্ট আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়য়ের সুপরামর্শ এবং তত্ত্বাবধায়নে ডিজিটাল বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার গল্প, সক্ষমতা এবং অর্জনের গল্প গুলো তুলে ধরা হবে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০২০ এ। ৯ ডিসেম্বর থেকে ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সবাই কেডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। আমাদের আয়োজনকে সফল এবং সার্থককরার জন্য বাংলাদেশের ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মইভ্যালি ‘প্ল্যাটিনাম স্পন্সর’হিসেবে এগিয়ে এসেছে। তার জন্য ইভ্যালি ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মকে অভিনন্দন এবং শুভকামনা জানাচ্ছি।

অন্যদিকে ইভ্যালির প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান নির্বাহীকর্মকর্তা মোহাম্মদ রাসেলবলেন, আজএকটি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হিসেবে আমরা যে কাজ করে যাচ্ছি তা সম্ভব হয়েছে  বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের মাধ্যমে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশের যে স্বপ্ন দেখেছেন, সেটিকে বাস্তবায়ন করেছেন তার উপর ভর করেই আমরা ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান গুলো কাজ করে যাচ্ছি। কোভিড-১৯ করোনা সময়ে ই-কমার্স হিসেবে আমরা আমাদের সক্ষমতা দেখিয়েছি। ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০২০ এ পুরো দেশের এমন অনেক সক্ষমতা এবং সফলতার দিকগুলো তুলে ধরা হবে। প্রযুক্তি বিষয়ক দেশের সর্ববৃহত এই আয়োজনের সাথে যুক্ত হতে পেরে আমরা আনন্দিত, গর্বিত। আমাদেরকে এই সুযোগ দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী, তার উপদেষ্টা এবং আইসিটি প্রতিমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।
চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে বাংলাদেশ সফটওয়্যার এন্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এর সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর, বিসিসির আঞ্চলিক পরিচালক মধুসূদন চন্দ, ইভ্যালির জনসংযোগ ব্যবস্থাপক মেজবাহ উদ্দিন, বাংলা নিউজের স্টাফ করে স্পন্ডেন্ট (আইসিটি) সোলায়মান হোসেন শাওনসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান ও সংস্থার উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, আগামী ৯ ডিসেম্বর সকাল ১১টায় ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০২০ এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ। ১০ ডিসেম্বর বিভিন্ন দেশের মন্ত্রীদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হবে মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্স। এতে মূল বক্তা হিসেবে কী- নোট উপস্থাপনা দেবেন প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।
এছাড়াও পুরো আয়োজনে ২৪টি বিষয় ভিত্তিক সেমিনার, কনফারেন্স, প্রদর্শনী, ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড সম্মাননা, ভার্চুয়াল মুজিবকর্ণার এবং ভার্চুয়াল মিউজিক্যাল কনসার্ট এর মতো আয়োজন থাকছে।

১১ ডিসেম্বর সন্ধ্যাসাড়ে পাঁচটায় সমাপনী অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে পর্দানামবে এবারের আসরের। প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। এবারের আয়োজনে দেশ বিদেশ থেকে ১ মিলিয়নর অধিক দর্শনার্থী ও অংশগ্রহণকারী ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০২০ ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্ম পরিদর্শন করবেন বলে আশা করা যাচ্ছে।

বিজ্ঞপ্তি

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর