× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৮ মার্চ ২০২১, সোমবার

আখাউড়ায় মেয়র প্রার্থীকে জুতাপেটা আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থকের

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার,ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে
১৪ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় জুতাপেটা করা হয়েছে সাবেক মেয়র নূরুল হক ভূইয়াকে। তিনি বর্তমান পৌর নির্বাচনের একজন প্রার্থী এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য।  নুরুল হক ভূইয়াও মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী  ছিলেন।  তিনি   আখাউড়া  দক্ষিণ  ইউনিয়ন  পরিষদের তিনবারের চেয়ারম্যান ও একবার আখাউড়া পৌরসভার মেয়র ছিলেন।
নূরুল হক ভূইয়া এই ঘটনার জন্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী তাকজিল খলিফা কাজলের লোকজনকে দায়ী করেন। বুধবার রাত  পৌনে ১০ টার  দিকে  পৌর  এলাকার সড়কবাজারে  একটি চায়ের দোকানে তার ওপর এ হামলা হয়। সেখানে চা পান করছিলেন তিনি।  আওয়ামীলীগ মনোনয়ন ঘোষনার পর আনন্দ মিছিল থেকে এ হামলা চালানো হয়। দেবগ্রাম ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি কাদের মোল্লার ছেলে সোহাগ মোল্লাসহ আরও কয়েকজন মিছিল থেকে বেড়িয়ে সাইফুলের চায়ের দোকানে আসে। কিছু বুঝে উঠার আগেই তাকে জুতা দিয়ে পেটায়। মেয়র প্রার্থী হওয়ায় সোহাগ এমনটি করেছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি। এ ঘটনায় রাতেই থানায় অভিযোগ দিয়েছেন নূরুল হক।
সোহাগের বিরুদ্ধে ৪টি মামলা রয়েছে। সে মাদক ব্যবসায়ী বলেও জানান নূরুল হক। ঘটনার পরপরই আওয়ামীলীগ মনোনীত বর্তমান মেয়র তাকজিল খলিফার সাথে সোহাগের ঘনিষ্ট ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। তবে তাকজিল   খলিফা   কাজল  সাংবাদিকদের ঢাকায় আছেন জানিয়ে বলেন, নুরুল   হক ভূইয়াকে জুতাপেটা করার ঘটনা তিনি জানেন না।  যদি  এমন   কিছু   হয়ে   থাকে   তাহলে  পুলিশ   অভিযুক্তের বিরুদ্ধে  আইনগত  ব্যবস্থা   নেবে।   যদি   সে  দলের   কেউ   হয়ে   থাকে, তাহলে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। এই ব্যাপারে আখাউড়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রসুল আহমদ নিজামী বলেন, নুরুল হক ভূইয়ার অভিযোগটি আমরা পেয়েছি। এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।  আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারী আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচনের ভোট গ্রহণ হবে। বুধবার রাতে এ ঘটনার একঘন্টা আগে কেন্দ্র থেকে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর নাম ঘােষনা করা হয়। এরপরই দল মনোনীত কাজলের পক্ষে আনন্দ মিছিল বের হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Kazi
১৫ জানুয়ারি ২০২১, শুক্রবার, ১:৩১

Was it neccessary to win election ?

অন্যান্য খবর