× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৯ মার্চ ২০২১, মঙ্গলবার

মৌমাছির গুঞ্জনে মুখরিত তাড়াশ

বাংলারজমিন

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি
১৫ জানুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

ঋতুর পালা বদলে শীতের আগমনী বার্তায় চলনবিলের তাড়াশে মাঠে মাঠে এখন সৌন্দর্যমণ্ডিত হলুদ সরিষার ফুল। গ্রামের দিগন্ত মাঠ সেজেছে হলুদ সরিষা ফুলের সমারোহে। এ মৌসুমে দেশের বিভিন্নস্থান থেকে মৌচাষিরা এসেছে মধু সংগ্রহে। এ বছর তাড়াশে প্রায় ১শ’ মৌচাষি শত শত মৌবক্স নিয়ে  এসেছেন মধু সংগ্রহের জন্য। সরিষার ক্ষেতের পাশে স্থাপন করেছে এই মৌবক্সগুলো। প্রতিটি বক্স থেকে সপ্তাহে ৬ থেকে ৭ কেজি করে মধু সংগ্রহ করা হচ্ছে। আর সপ্তাহ শেষে ঢাকা থেকে মধু সংগ্রহ কোম্পানির লোকজন এসে প্রতিমণ মধু ৫ হাজার থেকে ৫৫শ’ টাকায় ক্রয় করে নিয়ে যাচ্ছে। এ বছর তাড়াশ উপজেলায় ৬ হাজার ১শ’ ১০ হেক্টর জমিতে সরিষার চাষ হয়েছে।
কৃষি অধিদপ্তর ধারণা করছে উপজেলার মাঠ থেকে এ বছর ২০ থেকে ২৬ টন মধু সংগ্রহ করা সম্ভব হবে। নাটোর জেলার গুরুদাসপুর থেকে আসা সরকার মৌখামারের প্রোপাইটার মিলন সরকার জানান, আমরা প্রতিবছর এ সময় তাড়াশে মধু সংগ্রহ করতে আসি। আমার খামারে ১৫০টি মৌবক্স আছে। প্রতিটি বক্স থেকে সপ্তাহে ৬ থেকে ৭ কেজি করে মধু সংগ্রহ করতে পারি। কোম্পানির লোক এসে প্রতিমণ মধু ৫ হাজার থেকে ৫৫শ’ টাকায় ক্রয় করে নিয়ে যাচ্ছে। এ ছাড়াও স্থানীয় লোকজন খাঁটি মধু ক্রয় করছে। এ ব্যাপারে তাড়াশ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা লুৎফুন্নাহার লুনা বলেন, আমরা মাঠ পর্যায়ে  কৃষকদের সরিষা ও মৌচাষে  সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য প্রশিক্ষণ দিচ্ছি।
আশা করছি এ বছর সরিষার বাম্পার ফলন হওয়ায় ২০ থেকে ২৫ মেট্রিক টন মধু সংগ্রহ হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর