× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

বিদেশি শিক্ষার্থীর সংখ্যা নেমে এসেছে অর্ধেকে

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
১৬ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার

দেশে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে বিদেশি শিক্ষার্থী অর্ধেকে নেমে এসেছে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়েও ধীরে ধীরে কমছে এই সংখ্যা। ২০১৯ সালে বিদেশ থেকে দেশে পড়তে এসেছিলেন মাত্র ৪৮২ জন শিক্ষার্থী। ৪৬টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করছেন তারা। ঠিক আগের বছর ২০১৮ সালে বিদেশি শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ৮০৪ জন। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে বিদেশি শিক্ষার্থী কমেছে ৩২২ জন। বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সর্বশেষ বার্ষিক প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। ইউজিসি’র প্রতিবেদনে জানা গেছে, বাংলাদেশে বিদেশি শিক্ষার্থীর সংখ্যা বরাবরই কম।
২০১০ সালে বিদেশি শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ৩৫৯ জন, ২০১১ সালে ২১০, ২০১২ সালে ৫২৫, ২০১৩ সালে ৩২৬, ২০১৪ সালে ৪৩২, ২০১৫ সালে ৫৯৩, ২০১৬ সালে ৩৫৫, ২০১৭ সালে ৪৬১, ২০১৮ সালে ৮০৪ জন ও সর্বশেষ ২০১৯ সালে বাংলাদেশে পড়তে আসেন ৪৮২ জন শিক্ষার্থী। এই ১০ বছরে গড়ে বিদেশি শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ৪৩৪ দশমিক ৭ জন।
বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়েও কমেছে বিদেশি শিক্ষার্থীদের সংখ্যা। যদিও ২০১৮ সালের তুলনায় ২০১৯ সালে কিছুটা সংখ্যায় বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০১৭ সাল থেকে ২০১৯ সালে বিদেশি শিক্ষার্থী কমেছে ৫১০ জন। ২০১৭ সালে বিদেশি শিক্ষার্থী ছিল ১ হাজার ৯৭৭ জন। ২০১৮ সালে ১ হাজার ৩৮৬ জন। ২০১৭ সাল থেকে ২০১৮ সালে শিক্ষার্থী কমে ৫৯১ জন। আর ২০১৯ সালে ১ হাজার ৪৬৭ জন। অর্থাৎ ২০১৮ সাল থেকে ২০১৯ সালে বৃদ্ধি পেয়েছে ৮১ জন।
২০১৯ সালে ৩৭টি দেশ থেকে শিক্ষার্থীরা অধ্যয়ন করতে আসেন। ২০১৮ সাল থেকে বৃদ্ধি পেয়েছে ৪টি দেশ। ৯৪টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ৩৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করেন তারা। দেশগুলো হলো- ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, ভুটান, মালদ্বীপ, চীন, জাপান, ইউএসএ, ইয়েমেন, ফিলিস্তিন, গাম্বিয়া, মরক্কো, সাউথ কোরিয়া, তুরস্ক, উগান্ডা, জিম্বাবুয়ে, সিয়েরালিয়েন, যুক্তরাষ্ট্র, ইন্দোনেশিয়া, সোমালিয়া, ইথিওপিয়া, নাইজেরিয়া, আফগানিস্তান, ফিলিপাইন, বাহরাইন, লাইবেরিয়া, ফিজি, পাপুয়া নিউগিনি, মিয়ানমার, কেনিয়া, সাউথ সুদান, যুক্তরাজ্য, সৌদি আরব, ক্যামেরুন, ইরান এবং জর্ডান।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Kazi
১৫ জানুয়ারি ২০২১, শুক্রবার, ৫:৫৪

Where life of people is at risk thinking about Education, foreign students, irrelevant.

অন্যান্য খবর