× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৪ মার্চ ২০২১, বৃহস্পতিবার
ভিন্ন চিত্র সিলেট নগরীর

মেয়র আরিফের সিদ্ধান্তে একমত ব্যবসায়ী নেতারা

শেষের পাতা

ওয়েছ খছরু, সিলেট থেকে
১৬ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার

ফুটপাথ দখলমুক্ত। অনেকটা অসাধ্য সাধন কাজ। সেটি করলেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। এখন হকাররা লালদিঘীর পাড়ের অস্থায়ী বাজারে। ফুটপাথ ফাঁকা। ভিন্ন চিত্র সিলেট নগরের। মডেল সড়ক হচ্ছে কোর্ট পয়েন্ট থেকে চৌহাট্টা পর্যন্ত। দুই লেনে হয়েছে রাস্তা।
নেই তারের জঞ্জাল। রিকশা চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এতে যানজট নেই জিন্দাবাজারে। কোর্ট পয়েন্টের যানজটও কমে এসেছে। এই অবস্থায় বাধ সাধেন জিন্দাবাজারের ব্যবসায়ীদের একাংশ। তারা রিকশা চলাচল চান জিন্দাবাজারে। গত বৃহস্পতিবার সভা করে দিয়েছেন আল্টিমেটামও। মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সিলেট মহানগরের ব্যবসায়ী সমিতিকে নিয়ে বৈঠক করেছেন। স্মার্ট সিটি গড়তে সহায়তা চান। জানালেন নগরকে যানজট মুক্ত রাখতে জিন্দাবাজারে রিকশা চলাচল বন্ধ করেছেন। সেটি কেবল জিন্দাবাজারেই নয়, পর্যায়ক্রমে কয়েকটি প্রধান প্রধান সড়কেও এই সিদ্ধান্ত আসছে। সব শুনে ব্যবসায়ীরাও আরিফকে অভয় দিয়েছেন। সঙ্গে থাকার আশ্বাসও দেন। সিলেট নগরে যানজটের অন্যতম কারণই হচ্ছে রিকশা। সেটি এবার প্রমাণ করলেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। জিন্দাবাজারের চর্তুদিকে রিকশা চলাচল বন্ধ করতেই যানজট নেই ব্যস্ততম এলাকায়। ফুটপাথ খালি থাকায় মানুষ হেঁটে চলছে। সিএনজি সহ যানবাহন চলছে রাস্তায়। ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, জিন্দাবাজার যানজট মুক্ত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে সিলেট মহানগর ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদের নেতাদের নিয়ে নগর ভবনে বৈঠক করেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। সিটি করপোরেশনের গণসংযোগ শাখা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে- ?কোর্ট পয়েন্ট-জিন্দাবাজার-চৌহাট্টা এলাকায় রিকশা চলাচলে নিষেধাজ্ঞা ইস্যুতে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সঙ্গে এ মতবিনিময় করেছেন ব্যবসায়ীরা। অংশ নেন সিলেট মহানগর ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদসহ বিভিন্ন মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ। ?মতবিনিময় সভায় ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ বলেন- কোর্ট পয়েন্ট-জিন্দাবাজার-চৌহাট্টা সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধ করায় সাময়িক ব্যবসায়ীদের ক্ষতি হলেও সিলেটকে যানজটমুক্ত একটি আধুনিক স্মার্ট নগর প্রতিষ্ঠায় সিসিকের যৌক্তিক সকল সিদ্ধান্তে সিলেট মহানগর ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদ সহযোগিতা করবে। সভায় এই সড়কে রিকশা চলাচলের দাবিতে যারা প্রতিবাদী কর্মসূচি ও সিসিকে আলটিমেটাম দিয়েছেন তাদের সঙ্গে সিলেট মহানগর ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদ সহ বিভিন্ন মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই বলেও জানান। সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন- ব্যবসায়ীদের স্বার্থ অক্ষুণ্ন রেখে ক্রেতারা যাতে আরো নির্বিঘ্নে জিন্দাবাজার ও আশপাশ এলাকায় কেনাকাটা করতে পারেন সেজন্যই এই সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এই সড়কের দু’পাশের ফুটপাথ থেকে হকারদের সরিয়ে নেয়ায় ফুটপাথে হাঁটতে পারছেন পথচারীরা। একইভাবে কোর্ট পয়েন্ট-জিন্দাবাজার-চৌহাট্টা সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধ হওয়ায় ক্রেতা সাধারণের চলাচলও নির্বিঘ্ন হয়েছে। তিনি জিন্দাবাজারের পাশাপাশি অন্যান্য এলাকার ব্যবসায়ীদের এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে সহযোগিতা কামনা করেন। সভায় বক্তব্য রাখেন সিলেট মহানগর ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদের সভাপতি মো. আব্দুর রহমান রিপন, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আব্দুস সামাদ, ১ম সাধারণ সস্পাদক আব্দুল হাদী পাবেল সহ ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ। এদিকে, ব্যবসায়ীদের আল্টিমেটামের সিদ্ধান্তে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। জিন্দাবাজারে রিকশা চলবে না- এই সিদ্ধান্তই বহাল থাকছে। মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী জানিয়েছেন, সিলেটে শ’ শ’ কোটি টাকা ব্যয়ে উন্নয়ন কাজ হচ্ছে। মডেল সড়কে নেই তারের জঞ্জাল। নেই বিদ্যুতের খুঁটি ও তার। সবই ভূগর্ভে চলে গেছে। ফলে নগরের সৌন্দর্য এখন দৃশ্যমান হচ্ছে। এই অবস্থায় স্মার্ট সিটি গড়ে তুলতে হলে এই নগরীর ব্যবসায়ী, বাসিন্দা সহ মহলের সমর্থন ও সহযোগিতা প্রয়োজন। পরিকল্পনা করেই সিলেট নগরীর উন্নয়ন কর্মকাণ্ড হচ্ছে। সুতরাং এই পরিকল্পনায় সাময়িক ক্ষতি হলেও সবাই ফলাফল ভোগ করবে দীর্ঘ মেয়াদি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Kazi
১৫ জানুয়ারি ২০২১, শুক্রবার, ৫:৪৬

বাংলাদেশ ছাড়া ফুটপাতে ব্যবসা কোন দেশে চালু নেই । বাংলাদেশী আর ইন্ডিয়ান ছাড়া ফুটপাথে কেউ দোকান খুলে না। কানাডায় কিছু বাংলাদেশী শুরু করেছে। আর কিছু ইন্ডিয়ান ও।

nurul choudhury
১৬ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার, ১২:৪৩

Mayor Arif : Keep up the good work. You will always find opposition from people who does not care about a beautiful Sylhet.

অন্যান্য খবর