× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২ মার্চ ২০২১, মঙ্গলবার

দাগনভূঞায় এম্বুলেন্সে এসে ভোট দিয়ে ঢাকায় ফিরলেন রোগী

বাংলারজমিন

নাজমুল হক শামীম, ফেনী থেকে
১৭ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার

ফেনীর দাগনভূঞার পৌরসভা নির্বাচনে এক ভোটার এম্বুলেন্সে এসে ভোট দিয়ে ঢাকার হাসপাতালে ফিরে গিয়েছেন। গতকাল দুপুরে পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের আলাইয়াপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোটার মো. ইব্রাহিম ঢাকার একটি হাসপাতাল থেকে এম্বুলেন্সে করে ভোটকেন্দ্রে এসে ভোট দিয়ে ফের একই বাহনে ঢাকার হাসপাতালে ফিরে যান। সে ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ছিল। পরবর্তীতে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে তার ভাই জাকিরের গাজর প্রতীককে সমর্থন দিয়েছেন। অতীতে যেকোনো নির্বাচনে হুইল চেয়ার বা স্বজনদের কোলে করে এসে ভোট দিতে দেখা গেলেও দাগনভূঞা পৌরসভা নির্বাচনে এম্বুলেন্সে করে এসে ব্যতিক্রমী ভোট দেয়ার চিত্র স্থানীয়দের মনে নির্বাচন নিয়ে নতুন করে প্রাণের সঞ্চার সৃষ্টি করেছে। ইব্রাহিম আরো জানান, কাউন্সিলর পদে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেও তার ভাই কাউন্সিলর প্রার্থী জাকির নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় ভাইকে সমর্থন দিয়ে তিনি নিজের মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেন। কাউন্সিলর পদে তার ভাই জাকিরের গাজর প্রতীক ও মেয়র পদে নৌকা প্রতীকে ভোট দেয়ার জন্য অসুস্থ অবস্থায় তিনি ঢাকা থেকে চলে আসেন। প্রথমবারের মতো ইভিএম মেশিনে ভোট দিতে পেরে তিনি উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন।
আলাইয়াপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার খিজ্জির আহমেদ জানান, ইব্রাহিমকে স্ট্রেচারে করে ভোটকক্ষে নিয়ে আসা হলে ভোটকক্ষের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের সহযোগিতায় তিনি ভোট প্রদান করেন। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. কামাল হোসেন জানান, দাগনভূঞা পৌরসভা সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত ১৩টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হয়েছে। নির্বাচনে মেয়র পদে ৪ জন ও কাউন্সিলর পদে ১৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। একক প্রার্থী থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সাধারণ ওয়ার্ডে ৪ জন ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৩ জন ইতিমধ্যে নির্বাচিত হয়েছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর