× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শনিবার

৭০ বছর বয়সী নারীকে মারধর করে সর্বস্ব লুটে নিয়েছে গৃহকর্মী

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) জানুয়ারি ২০, ২০২১, বুধবার, ১:৩২ অপরাহ্ন

রাজধানীর মালিবাগে ফাঁকা বাসায় গৃহকর্মীর হাতে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ৭০ বছর বয়সী বিলকিস বেগম। তাকে মারধর করে নগদ টাকা ও স্বর্ণ নিয়ে পালিয়েছে গৃহকর্মী। গুরুতর আহত বিলকিস বেগমকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় শাহজাহানপুর থানায় অভিযোগ করেছেন বিলকিস বেগমের পরিবার।
মালিবাগের ওই বাসার সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখে গেছে ঘটনার শুরু থেকে পুরো দৃশ্য। সোমবার সকাল সোয়া ১০ টার দিকে ঘটনাটি ঘটে। কিডনীসহ নানা রোগা আক্রান্ত বিলকিস বেগম শুয়ে আছেন বিছানায়। পরম যত্নে তার সেবা করছেন রেখা নামের গৃহকর্মী।
কিছুক্ষণের মধ্যে রেখার ভয়ঙ্কর রূপ প্রকাশ পায়।
হঠাৎ করেই বিলকিস বেগমের শরীরের সব কাপড় খুলে বাথরুমে নিয়ে যায় রেখা। শীতের সকালে বৃদ্ধার গায়ে ইচ্ছেমতো ঢালা হয় ঠাণ্ডা পানি। বাথরুমে আটকে রাখার চেষ্টা করে। কিন্তু বৃদ্ধাকে আটকাতে না পেরে এবার লাঠি হাতে নেয় রেখা। আঘাত করতে থাকে বৃদ্ধাকে। মার খেয়ে ফ্লোরে পড়ে যান বৃদ্ধা বিলকিস বেগম। এবার হাতের কাছে যা পায় তা দিয়েই মারধর করে রেখা। এবার আলমারির চাবি খুঁজে না পেয়ে বৃদ্ধাকে চাবি দিতে বলে। চাবির জন্য তার বুকের উপর চেপে বসে। বটি হাতেও তেড়ে যায় রেখা।
বিলকিস বেগমের গলা থেকে চেইন, হাতের বালা খুলে নিয়ে পরে নেয় রেখা। এরমধ্যেই আলমারির চাবি খুঁজে পায়। কিন্তু খুলতে না পেরে রক্তাক্ত, অসুস্থ বৃদ্ধাকে টেনে নিয়ে বাধ্য করে আলমারি খুলে দিতে। ড্রয়ার খুলে স্বর্ণ, নগদ টাকা, মোবাইলফোন ও রুমে রাখা টিভি লুটে নেয় গৃহকর্মী রেখা। আহত বৃদ্ধাকে রুমে তালাবদ্ধ রেখে ব্যাগে করে এসব নিয়ে পালিয়ে যায়।  
স্বামীর মৃত্যুর পর দুই ছেলে ও তিন মেয়ের মধ্যে দু’জনকে নিয়ে এই বাসায় থাকেন বিলকিস বেগম। ঘটনার সময় বাসায় কেউ ছিলেন না। ব্যবসায়িক কাজে সন্তানরা ছিলেন বাসার বাইরে। ওই সময়ে গৃহকর্ত্রী  বিলকিস বেগমকে আহত করে সর্বস্ব লুটে পালিয়ে যায় বাসার গৃহকর্মী।
সূত্র: চ্যানেল টুয়েন্টিফোর

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর