× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

নতুন রাজনৈতিক দল গঠন করবেন ট্রাম্প!

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) জানুয়ারি ২০, ২০২১, বুধবার, ৫:৪১ অপরাহ্ন

নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের পরিকল্পনা করছেন যুক্তরাষ্ট্রের বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। ওই দলের নাম হতে পারে 'প্যাট্রিয়ট পার্টি'। জাতীর উদ্দেশ্যে দেয়া বিদায়ী ভাষণে তিনি বলেন, আমাদের যে আন্দোলন চলছে সেটি হচ্ছে মাত্র শুরু। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের বরাত দিয়ে ডেইলি মেইল জানিয়েছে, এরইমধ্যে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট দল গঠনের বিষয়ে তার মিত্রদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। গত মঙ্গলবার ট্রাম্প অঙ্গীকার করে বলেন, রাজনৈতিক অঙ্গন থেকে তিনি কোনোভাবেই হারিয়ে যাবেন না। যে আন্দোলন চালু হয়েছে তা কেবল মাত্র শুরু।

তবে ট্রাম্পের এমন সিদ্ধান্তে সার্বিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে রিপাবলিকান দল। দলের একাংশ ট্রাম্পের বিচ্ছিন্ন এজেন্ডায় সমর্থন দিয়ে গেছেন আবার আরেক অংশ তার কট্টোর অবস্থান অপছন্দ করেন।
ট্রাম্প নতুন দল গঠন করলে তা রিপাবলিকানদের মধ্যে বিভক্তি সৃষ্টি করবে এমন আশঙ্কাও রয়েছে। সিনেট মেজোরিটি লিডার মিচ ম্যাককনেল মঙ্গলবার বলেন, ক্যাপিটল হিলে দুই সপ্তাহ আগে যে হামলা হয়েছে তাতে উৎসাহ দিয়েছেন ট্রাম্প। তাদেরকে উত্তেজিত করেছেন প্রেসিডেন্ট এবং প্রভাবশালী ব্যক্তিরা। ট্রাম্প হোয়াইট হাউজ ছাড়ার পর মিচ ম্যাককনেলই হচ্ছেন রিপাবলিকান দলের জেষ্ঠ্য নেতা। নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, ম্যাককনেল বিশ্বাস করেন ট্রাম্প যা করেছেন তাতে তাকে ইমপিচ করা প্রয়োজন। যদিও তিনি নিশ্চিত নন তিনি সিনেট ট্রায়ালে ট্রাম্পকে অভিযুক্ত করবেন কিনা। কিন্তু তিনি কখনো ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলতে চাননা বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন।

অনেক রিপাবলিকান নেতারা এখন ট্রাম্পকে দ্রুত ভুলে যেতে চাইছেন। তবে গত নির্বাচনে যেই ৭ কোটি ৪০ লাখ মানুষ ডনাল্ড ট্রাম্পকে ভোট দিয়েছিল দলে তার প্রভাব পরবেই। বিষয়টিতে ইঙ্গিত দিয়ে ট্রাম্প মঙ্গলবার বলেন, মিলিয়ন মিলিয়ন দেশপ্রেমিকরা মিলে আমরা যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের সবথেকে বড় রাজনৈতিক আন্দোলন গড়ে তুলেছি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Milton
২০ জানুয়ারি ২০২১, বুধবার, ৯:১৯

Having being born and raised in the Western world, how come he got the same soul, heart and mentality like our political masters???!!!

অন্যান্য খবর