× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শনিবার

পাবনায় গৃহহীন ১ হাজার ৮৬ পরিবারকে পাকা ঘর দিচ্ছে সরকার

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, পাবনা থেকে
২১ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

‘আশ্রয়নের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার’- এ স্লোগানকে সামনে রেখে মুজিব জন্মশতবর্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে সারা দেশের ন্যায় পাবনায় ১ হাজার ৮৬ ভূমিহীন ও গৃহহীন পাচ্ছে ‘স্বপ্নের নীড়’।
প্রায় ১৯ কোটি টাকা ব্যয়ে (প্রত্যেকটি বাড়ি ১ লাখ ৭১ হাজার ৪শ’ টাকা) মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ১ম পর্যায় গৃহহীনদের মাঝে দুই শতক জমিসহ গৃহ হস্তান্তর করা হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা  গেছে।
আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘরগুলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গৃহহীনদের মাঝে হস্তান্তর করার কথা রয়েছে। পাবনা জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
 জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, মুজিব জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে জেলার ৯ উপজেলার ১ হাজার ৮৬ টি পরিবার গৃহহীন আশ্রয়ন প্রকল্পে দুই শতক জমিসহ  সেমি পাকাঘর পাবে। ইটের দেয়াল, কংক্রিটের মেঝে এবং রঙিন টিনের ছাউনি দিয়ে তৈরি দুইটি কক্ষের আবাসন। আরো থাকছে একটি রান্নাঘর, টয়লেট ও সামনে খোলা বারান্দা।
ইউপি চেয়ারম্যানরা ছিন্নমূল ও ভূমিহীন পরিবারের তালিকা পাঠান সংশ্লিষ্ট দপ্তরে।  সেসব তথ্য উপজেলা ভূমি অফিস থেকে জমি-বাড়ি নেই এমন পরিবারের তালিকা যাচাই-বাছাই করে পাঠানো হয় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে। গৃহহীনদের তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে। ঘরগুলো যাতে টেকসই এবং মানসম্মত হয় সেজন্য জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের মনিটরিং কমিটি নিয়মিত তদারকি করছেন।
ইতিমধ্যে ঘরগুলো নির্মাণকাজ প্রায় শেষ পর্য়ায়ে। পাবনা সদর ৪৪৯, সাঁথিয়া ৩৭২, আটঘরিয়া ৮৫, ফরিদপুর ৫০, ঈশ্বরদী ৫০, চাটমোহর ৩০, সুজানগর ২০, বেড়া ২০ এবং ভাঙ্গুড়া উপজেলায় ১০ টি পরিবার এই স্বপ্নের নীড় পাবে।
পাবনা জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ জানান, প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার মুজিববর্ষে একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না। প্রধানমন্ত্রীর এ ঘোষণাকে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এই কার্যক্রম।
প্রকৃত ভূমিহীন ও গৃহহীনরাই পাবেন এ ঘরগুলো। এর ফলে পরিবারগুলো পাবে সামাজিক মর্যাদা ও নতুন ঠিকানা। ঘর বরাদ্দে কোনো ধরনের অনৈতিক সুযোগ-সুবিধা না নিতে পারে  সেজন্য সঠিকভাবে তদারকি করা হচ্ছে। পাশাপাশি নির্মাণাধীন ঘরের কাজের মান শতভাগ ঠিক রাখতে প্রতিনিয়ত মনিটরিং করা হচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর