× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৯ মার্চ ২০২১, মঙ্গলবার
ঢাকা দক্ষিণ

প্রতিটি ওয়ার্ডে কমিউনিটি সেন্টার করবে ডিএসসিসি

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) জানুয়ারি ২১, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৫:৪৩ অপরাহ্ন

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সকল ওয়ার্ডে একটি করে সামাজিক অনুষ্ঠান কেন্দ্র (কমিউনিটি সেন্টার) নির্মাণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ডিএসসিসি’র মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। বৃহস্পতিবার দুপুরে নগর ভবনে ‘পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রম জোরদারকরণ কার্যক্রমের দ্বিমাসিক পর্যালোচনা সভায়’ এ তথ্য জানান তিনি। তাপস বলেন, আমাদের নতুন ১৮টি ওয়ার্ডসহ যেসকল ওয়ার্ডে সামাজিক অনুষ্ঠান কেন্দ্র নেই, সে সকল ওয়ার্ডে সামাজিক অনুষ্ঠান কেন্দ্র নির্মাণের জন্য আমরা প্রকল্প প্রস্তাবনা প্রণয়ন করে মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করেছি। সে অনুযায়ী সকল ওয়ার্ডে নতুন করে পাঁচতলা ভবন করে সামাজিক অনুষ্ঠান কেন্দ্র নির্মাণ করব। সেখানে একটি ফ্লোরে আমাদের কাউন্সিলর কার্যালয় থাকবে এবং আরেকটি ফ্লোরে ‘নগদ স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র’ করে দেব। এরফলে সকল কার্যক্রমগুলো এক জায়গা থেকে হবে।  যাতে মানুষ জানে, এই ওয়ার্ডের এই কার্যালয় আছে এবং সে কার্যালয়ে গেলেই করপোরেশনের সেবা নিশ্চিত হবে। মেয়র বলেন, পরিবার পরিকল্পনা একটি অবহেলিত খাত ছিল। কিন্তু আমরা সেটাকে গুরুত্ব দিয়েছি ।
এটি একটি মৌলিক সেবার জায়গা। প্রাথমিক সেবার জায়গা। এই জায়গাটা আগে নিশ্চিত হলে, পরবর্তীতে সেবার জায়গাগুলো আমরা নির্ধারণ করতে পারব, তার উৎকর্ষতা ও মান বাড়াতে পারব। তিনি বলেন, সিটি করপোরেশনের প্রতিটি এলাকায় আগের তুলনায় সম্পৃক্ততা বেড়েছে, সমন্বয় বেড়েছে। বাকি যতটুকু সমন্বয়হীনতা রয়েছে তা দূর করার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে।  তিনি আরো বলেন, আমার সভাপতিত্বে যে দ্বিমাসিক সভা হচ্ছে তার আগেই প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তার সভাপতিত্বে প্রতি মাসে একটি সভা হওয়া প্রয়োজন। এর মাধ্যমে মাসিক কতটুকু অগ্রগতি অর্জিত হল সেটা যেমনি জানা যাবে, তেমনি দ্বিমাসিক এই পর্যালোচনা সভা আরো বেশি ফলপ্রসূ হবে। মেয়র বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জনসংখ্যা বিস্ফোরণকে এক নম্বর সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করেছিলেন। সেই আলোকে সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে পরিকল্পিত পরিবার একটি আবশ্যকীয়ভাবে বিষয়। সে প্রেক্ষিতে এই কার্যক্রমকে বেগবান করার জন্য এরই মাঝে আমরা মনোযোগ দিয়েছি। সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (ডা.) শরীফ আহমেদের সঞ্চালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ সিটির সচিব আকরামুজ্জামান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা, কাউন্সিলর ও বিভিন্ন এনজিওর প্রতিনিধিগণ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর