× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২ মার্চ ২০২১, মঙ্গলবার

কেরানীগঞ্জে বাস টার্মিনাল নির্মাণের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন

বাংলারজমিন

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি
২৩ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার

ঢাকার কেরানীগঞ্জে বাঘৈর মৌজায় ঢাকা সিটি করপোরেশন কর্তৃক আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল  নির্মাণের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে শত শত গ্রামবাসী। গতকাল সকাল ১১টায় রাজেন্দ্রপুর কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে ঘণ্টাব্যাপী এই মানববন্ধন কর্মসূচিতে শত শত ভুক্তভোগী নারী-পুরুষ তাদের বাপ-দাদার চৌদ্দ পুরুষের বসতভিটা রক্ষা করার জন্য ঢাকা সিটি করপোরেশনের আন্তঃজেলা বাসস্ট্যান্ড করার সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ জানান। তারা এই মৌজায় বাসস্ট্যান্ড না করে অন্যত্র করার জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবিও জানান। মানববন্ধন শেষে বাসস্ট্যান্ড নির্মাণের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মানববন্ধন কর্মসূচিতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত হাজী মেজবাউদ্দিন বাবুল, খায়রুল মেম্বর, শিপু আহমেদ, মোহাম্মদ রায়হান মিয়া ও মো. আলম। মোহাম্মদ রায়হান মিয়া বলেন, বাঘৈর মৌজায় আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল নির্মিত হলে ১৫/২০টি ইটভাটা মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এক একটি ইটভাটা ২০ থেকে ২ কোটি টাকার ক্ষতির সম্মুখিন হবে।
হাজী মেজবাউদ্দিন বাবুল বলেন, বাঘৈর মৌজায় বাস টার্মিনাল নির্মিত হলে আমাদের বাপ দাদার চৌদ্দ পুরুষের ভিটেমাটি থেকে উচ্ছেদ হয়ে আমরা একেবারে নিঃশ্ব হয়ে যাবো। তাই আমরা সরকারের কাছে ্‌আবেদন জানাচ্ছি এখান থেকে অন্যত্র বাস টার্মিনাল নির্মাণ করা হোক। জানা যায়, ঢাকা সিটি করপোরেশন রাজেন্দ্রপুর কেন্দ্রীয় কারাগারের পাশে বাঘৈর মৌজায় কয়েকশত একর জমির উপর আন্তঃজেলা একটি বাসস্ট্যান্ড করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ বিষয়ে বাঘৈর মৌজার জমির মালিকদের অবহিত করা হয়েছে। এতে জমি ও বসতবাড়ির মালিকগণের মধ্যে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর