× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১ মার্চ ২০২১, সোমবার

সালমান এফ রহমানের সহযোগিতায় সর্বোচ্চ ঘর পেলো দোহার ও নবাবগঞ্জের ১০১১টি পরিবার

বাংলারজমিন

নবাবগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি
২৪ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা ঢাকা-১ আসনের সংসদ সদস্য সালমান এফ রহমানের সহযোগিতায় সর্বোচ্চ ঘর পেলো দোহার-নবাবগঞ্জের ১০১১ পরিবার। ভিটেমাটি ও গৃহহারা মানুষ খুঁজে পেলো মাথা গোঁজার স্থায়ী ঠিকানা। ২০১৬ সালে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ঢাকার দোহার ও নবাবগঞ্জ দুই উপজেলায় ১০১১টি  ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মধ্যে জমিসহ ঘর প্রদান করা হয়েছে। এতে দোহার উপজেলায় ২৪১টি ও নবাবগঞ্জ উপজেলায় ৭৭০টি পরিবারের মধ্যে ঘর প্রদান করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল গণভবন থেকে বেলা ১১টায় সারা দেশের ৪৯২টি উপজেলায় ৬৬ হাজার ১শ’ ৮৯টি পরিবারে একযোগে ভিডিও কনফারেন্সিং করে জমির দলিল ও অন্যান্য কাগজপত্র হস্তান্তর করেন। সারা দেশের ন্যায় নবাবগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে আব্দুল ওয়াছেক মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে দলিল হস্তান্তর অনুষ্ঠান করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচ এম সালাউদ্দীন মনজু এতে সভাপতিত্ব করেন। অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
নবাবগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি মো. রাজিবুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ভাস্কর দেবনাথ বাপ্পী। নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু, উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মিজানুর রহমান ভূঁইয়া কিসমত, যুগ্ম আহ্বায়ক ড. সাফিল উদ্দিন মিয়া, ইঞ্জি. আরিফুর রহমান শিকদার, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা হাসান আহমেদসহ বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ। দোহারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ এফ এম ফিরোজ মাহমুদের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, সহকারী কমিশনার ভূমি জ্যোতি বিকাশ চন্দ্র।

দোহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আলী আহসান খোকন শিকদারসহ বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ইউপি চেয়ারম্যানগণ। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচ এম সালাউদ্দিন মনজু সারা দেশের উপজেলাভিত্তিক দোহার-নবাবগঞ্জ উপজেলা সংসদ সদস্য ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান এমপি মহোদয়ের বিশেষ অবদানের কথা স্বীকার করে বলেন, আমাদের বরাদ্দ দেশের বিভিন্ন উপজেলা থেকে সর্বোচ্চ। নবাবগঞ্জ উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নে ৭৭০ ভূমিহীন, গৃহহীন সুবিধাবঞ্চিত পরিবার ঘর পাবে। অপরদিকে দোহার উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফিরুজ মাহমুদ বলেছেন, সরকারের বরাদ্দকৃত ১৯৮ এবং এমপি মহোদয়ের ও জনপ্রতিনিধিদের সহযোগিতায় ৪৩সহ মোট ২৪১টি ঘর ৮ ইউনিয়নের ও ১টি পৌরসভার অসহায়, দুস্থ ও ভূমিহীন, গৃহহীন পরিবারের মাঝে বিতরণ করার জন্য দ্রুত কাজ এগিয়ে চলছে। এমপি মহোদয়ের সরাসরি দিকনির্দেশনা মোতাবেক কাজ পরিচালনা করা হচ্ছে যেন ঘরের গুণগত মান ঠিক রেখে কাজ করা হয়। প্রকৃত ভূমিহীন ও গৃহহীন স্থায়ীভাবে মাথা গোঁজার ও স্থায়ীভাবে বসবাস করার জন্য ব্যবস্থা করেছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, জননেত্রী ও দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে কোনো প্রকার গাফিলতি বরদাশত করা হবে না বলে এমপি মহোদয় হুঁশিয়ারি করেছেন। দোহার ও নবাবগঞ্জ উপজেলার কর্মসূচি বাংলাদেশের মডেল হিসেবে তুলে ধরার আহ্বান জানান। নবাবগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা এইচ এম সালাউদ্দিন মনজু বলেন, এমপি মহোদয়ের দিকনির্দেশনা মোতাবেক ডিজাইনে উপজেলার কৈইলাল ইউনিয়নের ১৪০ ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে যা উপর থেকে দেখতে অনেকটা জাতীয় পতাকার আদলে। নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ নাসিরউদ্দিন আহমেদ ঝিলু বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, জননেত্রী, দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে আমাদের প্রাণপ্রিয় নেতা সালমান এফ রহমানের নেতৃত্বে আমরা তৃণমূল পর্যায়ে কাজ করে যাচ্ছি। মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে বাস্তবায়িত কর্মসূচি সফল করে তোলা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর