× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

স্কটল্যান্ডে স্বাধীনতার প্রশ্নে আবার গণভোট হবে!

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) জানুয়ারি ২৪, ২০২১, রবিবার, ১২:৪০ অপরাহ্ন

মে মাসের নির্বাচনে বিজয়ী হলে ফার্স্ট মিনিস্টার নিকোলা স্টার্জেনের স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টি (এসএনপি) দ্বিতীয়বারের মতো একতরফাভাবে স্বাধীনতার প্রশ্নে গণভোট দেবে। এ বিষয়ে দলীয় নীতির বিষয়ে ১১ পয়েন্ট দাবি আজ রোববার উত্থাপন করবেন এসএনপির নেতা মাইক রাসেল। এতে বলা হবে, মে মাসের ভোটে যদি স্বাধীনতার পক্ষগুলো সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায় তাহলে আইনগত গণভোট আহ্বান করা হবে। তবে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডেইলি মেইল। এতে আরো বলা হয়, মাইক রাসেল যে ১১ দফা রোডম্যাপ ঘোষণা করবেন তার মধ্যে রয়েছে ক্যাটালোনিয়া-স্টাইলে গণভোট। এতে আরো বলা হবে, যদি মে মাসের নির্বাচনে স্বাধীনতাপন্থিরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায় তাহলে করোনা ভাইরাস মহামারির পরে এই গণভোট হবে। এক্ষেত্রে বৃটিশ সরকার যদি এই ভোটের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে তাহলে আদালতে এর প্রবল বিরোধিতা করা হবে।
নিকোলা স্টার্জেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের প্রতি ‘সেকশন ৩০’-এর ব্যাপারে সম্মতি দেয়ার আহ্বান জানাবেন। এই সেকশনই দ্বিতীয় স্বাধীনতার গণভোটের পথ করে দেবে। তবে এমন প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রী প্রত্যাখ্যান করবেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন। তিনি এসএনপি’কে অনুরোধ করবেন এক প্রজন্মে একটি গণভোটের প্রতিই প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকতে।
এমন অবস্থায় ‘অবৈধ’ একটি গণভোট করবে এসএনপি। এর ফলে বরিস জনসন এই ভোটের বৈধতা দিতে বাধ্য হবেন। অথবা তিনি স্কটিশ সরকারকে আদালতের দ্বারস্থ করতে পারেন গণভোট থামাতে। ওদিকে বৃটিশ সরকারের সূত্রগুলো বলেছে, তারা এমন গণভোটের বিষয় এড়িয়ে যাবেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর