× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১ মার্চ ২০২১, সোমবার

সতীর্থদের কাছে প্রতিপক্ষকে গুঁড়িয়ে দেয়ার ‘মানসিকতা’ চাইলেন বাবর আজম

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৪ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার

টি-টোয়েন্টি, ওয়ানডের পর টেস্টেও পাকিস্তানের নেতৃত্বের ব্যাটন এখন বাবর আজমের হাতে। যদিও সময়ের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান এখনো টেস্ট নেতৃত্বের স্বাদ পাননি। গত বছরের শেষে নিউজিল্যান্ড সফরে ইনজুরির জন্য মাঠে নামা হয়নি এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের। সবকিছু ঠিক থাকলে মঙ্গলবার শুরু হতে যাওয়া দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজে টেস্টে প্রথমবার পাকিস্তানকে নেতৃত্ব দেবেন বাবর। ১৪ বছর পর প্রোটিয়াদের আতিথ্য দিচ্ছে পাকিস্তান। ঘরের মাঠে দীর্ঘদিন পর বড় দলের বিপক্ষে সিরিজ। তার আগে সতীর্থদের কাছে নিজের চাওয়া জানিয়ে দিলেন পাকিস্তান অধিনায়ক। নিজের অধিনায়কত্বের ধরণ নিয়েও কথা বলেছেন ২৬ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) ইউটিউব চ্যানেলে রমিজ রাজার সঙ্গে আলাপচারিতায় বাবর বলেন, ‘নিজেদের বড় দল হিসেবে প্রমাণ করতে র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা দলের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের বিকল্প নেই।
আমি চাই আমার দল সব সময় ইতিবাচক ক্রিকেট খেলুক। সাদা বলের ক্রিকেটে বড় দলকে চ্যালেঞ্জ জানাতে হলে আক্রমণাত্মক ও ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলা গুরুত্বপূর্ণ।’

পাকিস্তান সফরে দুই টেস্ট ও তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকা। করাচী ও রাওয়ালপিন্ডিতে হবে টেস্ট সিরিজ। টি-টোয়েন্টি সিরিজের সবগুলো ম্যাচই হবে লাহোরের গাদ্দাফী স্টেডিয়ামে।

ব্যর্থ হলেও পদ ছাড়ার চিন্তা নেই মিসবাহর
সর্বশেষ দুই সিরিজেই ব্যর্থ পাকিস্তান। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ১-০তে হালেও দুই টেস্ট ড্র হয়েছে বৃষ্টির কল্যাণে। টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচ জিতে ১-১ ড্র করে পাকিস্তান। এরপর নিউজিল্যান্ড সফরেও ঘুরে দাঁড়াতে ব্যর্থ। দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজে হোয়াইটওয়াশের সঙ্গে শেষ ম্যাচে হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে। টি-টোয়েন্টিতে শেষ ম্যাচ জিতে হোয়াইওয়াশ এড়ালেও সিরিজ বাঁচাতে পারেনি। টানা ব্যর্থতায় চাপের মুখে রয়েছেন কোচ মিসবাহ উল হক। ঘরের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ খোয়ালে প্রধান কোচের পদ ছাড়তে হতে পারে মিসবাহকে। তবে সাবেক এই অধিনায়কের ভাবনায় নেই পদ হারানোর ভয়। তিনি বলেন, ‘এই সিরিজে ব্যর্থ হলে এমন (কোচের পদ হারানো) কিছু হবে বলে আমি মনে করি না। সব সময় চাপ নিয়েই ক্রিকেট খেলেছি এবং পারফর্মও করেছি। আপনি কখনই কোন কিছুর নিশ্চিয়তা দিতে পারবেন না। আমি নিজেও দলের পারফরম্যান্সে খুশি নই। আমরা অবশ্যই উন্নতি করার জন্য কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছি। আমি এবং দলের কোচিং স্টাফের সবাই আগামী সিরিজের জন্য দলকে প্রস্তুত করছি।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর