× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

নবীগঞ্জে যুবলীগের সংবাদ সম্মেলন পৌর নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, নবীগঞ্জ থেকে
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার

নবীগঞ্জে ১৬ই জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য পৌরসভা নির্বাচনে সূক্ষ্ম কারচুপি, প্রশাসনিক সিন্ডিকেট ও জালিয়াতির মাধ্যমে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আলহাজ গোলাম রসুল রাহেল চৌধুরীকে পরাজিত করার অভিযোগ করেছে উপজেলা যুবলীগ। একইসঙ্গে ১টি কেন্দ্রের ভোট পুনরায় গণনার দাবিতে দাবি জানিয়েছে তারা। গতকাল দুপুরে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত অভিযোগ পাঠ করেন উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম। এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক শাহ গুল আহমদ কাজল, যুগ্ম আহবায়ক লোকমান আহমদ খান। লিখিত অভিযোগে বলা হয়, গত ১৬ই জানুয়ারি দ্বিতীয় ধাপে নবীগঞ্জ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ হয়। সেখানে নৌকার প্রার্থীকে পরাজিত করে বেসরকারি ফলাফলে জয়ী হন বিএনপির মেয়র প্রার্থী ছাবির আহমেদ চৌধুরী। গোলাম রসুল রাহেল চৌধুরী স্থানীয় যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক। স্থানীয় প্রশাসন স্বজনপ্রীতি, বৈষম্যমূলক আচরণ করে নৌকার বিজয় ছিনিয়ে নেয়।
বিএনপি মনোনীত প্রার্থীর নিকটাত্মীয় লোকজনকে বাছাই করে প্রিজাইডিং ও পোলিং এজেন্ট নিয়োগ দিয়ে সাজানো চকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীকে পরাজিত করা হয়। প্রাথমিকভাবে নৌকা জয়লাভ করে। পরবর্তীতে উপজেলা কন্ট্রোল রুম হতে জেলা রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক ফলাফল ঘোষণায় দেখা যায় যে, ৯নং ওয়ার্ডস্থ নহরপুর কেন্দ্রের ফলাফল পাল্টে দেয়া হয়েছে। এ সময় ধানের শীষের প্রার্থী ছাবির আহমেদ চৌধুরীকে ২৬৪ ভোটে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। অভিযোগে বলা হয়, নহরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নৌকা প্রতীক ৯৯২ ভোট প্রাপ্তির ঘোষণা দেয়া হলেও উপজেলা কন্ট্রোল রুমে নৌকা প্রতীকে ৬৬৯টি ভোট দেখানো হয়। এছাড়াও পুলিশ প্রশাসনের স্বজনপ্রীতি, স্থানীয় প্রশাসনের বৈষম্যমূলক আচরণ ও সংখ্যালঘু ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন এবং পরিকল্পিত সিন্ডিকেটের কারসাজিতে পরাজিত হন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আলহাজ গোলাম রসুল রাহেল চৌধুরী। এনিয়ে আইনি লড়াই অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেয়া হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর