× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১ মার্চ ২০২১, সোমবার

রংপুরে মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রে লোমহর্ষক নির্যাতন

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর থেকে
২৭ জানুয়ারি ২০২১, বুধবার

রংপুরের ‘প্রধান মাদকাসক্তি নিরাময় ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে’ চিকিৎসার নামে লোমহর্ষক নির্যাতনের অভিযোগে কেন্দ্রটি বন্ধ ঘোষণা করেছে স্থানীয় প্রশাসন। মঙ্গলবার  রাতে রোগীদের স্বজন ও স্থানীয়রা ওই মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্র ঘেরাও করে বিক্ষোভ করলে কেন্দ্রটি বন্ধ করে দেয়া হয়। রোগীদের স্বজনরা জানান, মঙ্গলবার রাতে সেখানে অবস্থানরত এক রোগীকে চিকিৎসার নামে লোহার রড দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয়। এ খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১১টার দিকে ওই রোগীর স্বজনরা মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রে যান। এ সময় অন্য রোগীরা চিকিৎসার নামে নিজেদের ওপর চলা শারীরিক নির্যাতনে সৃষ্টি হওয়া ক্ষত দেখিয়ে উদ্ধারের আকুতি জানান। চিকিৎসার নামে অনেককে বিবস্ত্র করে গোপনাঙ্গ ও চোখে মরিচের গুঁড়া দেয়াসহ মলমূত্র খাওয়ানোর অভিযোগ করেন রোগীরা। খবর পেয়ে অন্যান্য রোগীর স্বজনরাও রাতেই ছুটে এসে কেন্দ্রের অভিযুক্ত লোকজনের ওপর চড়াও হন। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে অভিযুক্তরা কৌশলে পালিয়ে যান।
পুলিশ শারীরিক নির্যাতনের আলামত পাওয়ায় রোগীদের সেখান থেকে উদ্ধার করে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেন। খবর পেয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের কর্মকর্তারাও সেখানে যান।
এবিষয়ে রংপুর মহানগর পুলিশের অপরাধ বিভাগের অতিরিক্ত উপকমিশনার শহিদুল্লাহ কাওসার জানান, পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের কর্মকর্তারা জানান,  প্রতিষ্ঠানটির লাইসেন্স থাকলেও তা নবায়ন করা হয়নি। ১০ জন রোগীর চিকিৎসার অনুমতি থাকলেও সেখানে মোট ২১ জনকে গাদাগাদি করে ছোট্ট দুটি ঘরে মেঝের ওপর রাখা হত। থাকার ও রান্নাঘরসহ পুরো কেন্দ্রটির অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ দেখতে পান কর্মকর্তারা। পরে মাদকাসক্ত নিরাময়ের নামে অপচিকিৎসাসহ বেশকিছু অনিয়ম থাকায় কেন্দ্রটি বন্ধ করে দেয়া হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর