× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১ মার্চ ২০২১, সোমবার

পাঁচবিবিতে গার্মেন্টকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি সদস্যসহ আটক-২

বাংলারজমিন

পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি
২৮ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে এক গার্মেন্টকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে ধরঞ্জী ইউপি সদস্যসহ ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাতে তাদের নিজ বাড়ি থেকে আটক করা হয়। আটককৃত ধর্ষক উপজেলার ধরঞ্জী ইউনিয়ন পরিষদের ৩নং ওয়ার্ড সদস্য ও মির্জাপুর গ্রামের শরিফ উদ্দিনের ছেলে শাহাবুল ইসলাম (৪২) এবং তার সহযোগী জয়পুরহাট সদর উপজেলার উত্তর বানিয়াপাড়া গ্রামের জবায়দুর রহমানের ছেলে দুদু মিয়া (৩২)।
মামলা সূত্রে জানা যায়, নওগাঁ জেলার ধামুইরহাট উপজেলার আড়ানগর উত্তরপাড়া গ্রামের এক মেয়ে প্রায় ৮ বছর ধরে ঢাকার সাভারের এক গার্মেন্টে চাকুরি করছিলেন। চাকরিকালীন সময়ে পাঁচবিবি উপজেলার নন্দইল গ্রামের জাহিদ হোসেনের (৩৫) সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। জাহিদ মেয়েটিকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে বিকাশ একাউন্টের মাধ্যমে ও নগদ প্রায় দেড় লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। পরে মেয়েটি উক্ত ইউপি সদস্য শাহাবুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করে। সাহাবুল মেয়েটিকে জাহিদের নিকট থেকে টাকা উদ্ধার ও তার সঙ্গে বিয়ে দেয়ার আশ্বাস দিয়ে পাঁচবিবিতে আসতে বলে।
সে ২৫শে জানুয়ারি রাত ৯টায় পাঁচবিবি বাসস্ট্যান্ডে এলে ইউপি সদস্য রাতেই মেয়েটিকে তার বোনের বাড়িতে রাখার কথা বলে উপজেলার মির্জাপুর গ্রামে দুদু মিয়ার শ্বশুরবাড়িতে রাখে। শাহাবুল ও দুদু মিয়া রাতে মেয়েটিকে ভয়ভীতি দেখিয়ে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরদিন সকালে দুদু মিয়া মেয়েটিকে তার শ্বশুড়বাড়ি থেকে বের করে দেয়। নিরুপায় হয়ে মেয়েটি পরদিন ২৬শে জানুয়ারি পাঁচবিবি থানায় অভিযোগ করলে থানা পুলিশ প্রাথমিক তদন্তপূর্বক ধর্ষণের সত্যতা পায় এবং ইউপি সদস্য লম্পট শাহাবুল ইসলাম ও তার সহযোগী দুদু মিয়াকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।
পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র দেব জানান, মেয়েটির অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়ায় এবং ইউপি সদস্যের স্বীকারোক্তিতে থানায় মামলা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর