× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ এপ্রিল ২০২১, বুধবার

শহীদ মিনার এলাকায় র‌্যাব’র কড়া নিরাপত্তা

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, রবিবার

অমর একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনে শহীদ মিনার এলাকায় তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে বলে জানিয়েছেন র‌্যাব’র মহাপরিচালক (ডিজি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন। তিনি বলেন, সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে র‌্যাব’র কড়া নজরদারি থাকবে। মহান শহীদ দিবস উপলক্ষে যেকোনো বিশৃঙ্খলা ও অপতৎপরতা এড়াতে ছদ্মবেশে ও সাদা পেশাকে র‌্যাব সদস্যরা নজরদারি চালাবে। গতকাল দুপুরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ শেষে এসব কথা বলেন তিনি।  
র‌্যাব ডিজি বলেন, ভাষা শহীদদের স্মরণে শনিবার মধ্যরাত থেকে সারা দেশের শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হবে। করোনা পরিস্থিতির কারণে এবার সরকার নির্ধারিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে মহান শহীদ দিবস পালিত হবে। শহীদ মিনার এলাকায় আগতদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং বিশৃঙ্খলা ও যেকোনো সন্ত্রাসী কার্যক্রম এড়াতে র‌্যাব’র পক্ষ থেকে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকাকে পাঁচটি সেক্টরে ভাগ করে পুলিশের সঙ্গে সমন্বয় করা হবে।
এছাড়া র‌্যাব’র তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। বিভাগীয় ও জেলা শহরগুলোতে যেকোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা এড়াতে র‌্যাব সদস্যদের ছদ্মবেশে ও সাদা পোশাকে গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত থাকবে। র‌্যাব’র বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ও ডগ স্কোয়াড শহীদ মিনার এলাকা সুইপিং করবে ও পরে স্ট্যান্ডবাই থাকবে।
চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন বলেন, শহীদ দিবস উপলক্ষে ১৮ই ফেব্রুয়ারি থেকেই র‌্যাব’র নজরদারি অব্যাহত রয়েছে। শহীদ মিনারের আশপাশে হোটেল-রেস্তোরাঁ, বস্তিসহ সন্দেহজনক সব স্থানে তল্লাশির মাধ্যমে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে। শহীদ মিনারকেন্দ্রিক গুরুত্বপূর্ণ স্থানে চেকপোস্ট স্থাপন করে সন্দেহভাজনদের তল্লাশি করা হবে। নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে শহীদ মিনারে আগত নারীদের প্রয়োজনে র‌্যাব’র নারী সদস্যদের মাধ্যমে তল্লাশি করা হবে। শহীদ মিনারের আশপাশের এলাকায় র‌্যাব’র বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট, স্ট্রাইকিং ফোর্স স্ট্যান্ডবাই থাকবে। র‌্যাব’র কন্ট্রোল রুম থেকে সিসিটিভি ক্যামেরার মাধ্যমে সার্বক্ষণিক মনিটরিং করা হবে। যেকোনো স্থানে মুভমেন্টের জন্য র‌্যাব’র হেলিকপ্টার প্রস্তুত থাকবে। এছাড়া দেশজুড়ে শহীদ মিনার কেন্দ্রিক নিরাপত্তায় যথেষ্ট সংখ্যক র‌্যাব সদস্য মোতায়েন থাকবে। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে র‌্যাব ডিজি বলেন, শহীদ দিবস ঘিরে এখন পর্যন্ত কোনো হুমকির তথ্য পাইনি।

তবে আমরা কোনো কিছুকেই হালকাভাবে নেয় না, যেকোনো সময় যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত রয়েছি। আমাদের প্রস্তুতি রয়েছে, তবে কোনো ধরনের নাশকতার তথ্য নেই।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর