× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ এপ্রিল ২০২১, বুধবার

ভাষা দিবস এলেই অভিযান, জরিমানা

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, রবিবার

বাংলাদেশি সব প্রতিষ্ঠানের নামফলক, সাইনবোর্ড বাংলায় করার জন্য আইন করা হয়েছে। কার্যকর করতে আদালতের নির্দেশনাও রয়েছে। কিন্তু বছরব্যাপী তা হয় না। অবশ্য নামফলক বা সাইনবোর্ড বাংলায় না দেখলে শুধু ফেব্রুয়ারি তথা ভাষা দিবস সামনে এলেই অভিযানে নামে। এই মাসেই চলে যত অভিযান, জরিমানা। সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে তোড়জোড় শুরু হয়ে যায়।
বাংলা বানানে বিকৃতিসহ নাম ফলকে ইংরেজি শব্দ প্রয়োগের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বেসরকারি কয়েকটি ব্যাংকসহ রেস্তরাঁ, অভিজাত ভবনের নামে ইংরেজি শব্দ ব্যবহার করায় অভিযান চলে।
কিন্তু এই ফেব্রুয়ারি মাসে অভিযান চললেও সারা বছর তা অব্যাহত থাকে না। শুধু তাই নয়, যেসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করা হয় তারা বছর/মাস না ঘুরতেই আগের অবস্থায় ফিরে যায়। এ বিষয়ে তদারকি আর সেভাবে করা হয় না বলে দাবি সংশ্লিষ্টদের।
গত কয়েক বছরের মতো এবারো ঢাকার বেশ কিছু জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।
সাইনবোর্ড বা নামফলক ইত্যাদিতে বাংলা লেখা নিশ্চিত করতে ডিএনসিসি’র ৫ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার তিন ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে রাজধানীর কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ ও রামপুরা এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত (মোবাইল কোর্ট) পরিচালনা করা হয়। এ সময় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে সাইনবোর্ড বাংলায় না লেখায় ১ লাখ ৬৩ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
কামাল আতাতুর্ক এভিনিউতে অঞ্চল-৩ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল্লাহ আল বাকীর নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত সাইনবোর্ড বাংলা ভাষায় না লেখায় ১০টি ভবন ও প্রতিষ্ঠানকে মোট ৫৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। এর মধ্যে আহমেদ টাওয়ার, এ আর টাওয়ার, সফুরা টাওয়ার, ইরেকার্ট হাউজ, বোরাক টাওয়ার, অ্যাসুরেন্স, ভিশন কেয়ার, মটকা কিচেন, চাটাই এদের প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা এবং আরো ২টি প্রতিষ্ঠানকে ২ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া ৩টি ব্যাংকের প্রত্যেককে ২ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। এসব ভবন ও প্রতিষ্ঠানের সাইনবোর্ড অপসারণ করে বাংলা ভাষায় প্রতিস্থাপন করার জন্য ৭ দিন সময় দেয়া হয়। ব্যাংকগুলো হচ্ছে- ব্র্যাক ব্যাংক, সিটি ব্যাংক এবং সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স (এসবিএসি) ব্যাংক। সাইনবোর্ড বাংলা ভাষায় না লেখায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদ রামপুরা এলাকায় ৬টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ৪৮ হাজার টাকা জরিমানা করেন এবং ৫টি প্রতিষ্ঠানের সাইনবোর্ড অপসারণ করা হয়। এর মধ্যে আল কাদেরিয়া হোটেলকে ১০ হাজার, এসকোয়ার ইলেকট্রনিক্সকে ৫ হাজার, অরেঞ্জ ফার্নিচারকে ৫ হাজার, রানার মোটরসাইকেলের দোকানকে ১০ হাজার, বোলিং জুতার দোকানকে ১৫ হাজার, ভিবো মোবাইল ফোনের দোকানকে ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এই প্রতিষ্ঠানগুলোকে বাংলায় সাইনবোর্ড প্রতিস্থাপনের জন্য এক সপ্তাহের সময় দেয়া হয়। যে ৫টি প্রতিষ্ঠানের সাইনবোর্ড অপসারণ করা হয়েছে সেগুলো হচ্ছে ফেস জামা-কাপড়ের দোকান, ফিশারম্যান খাবার দোকান, রেমন্ড কাপড়ের দোকান, টারগেট কাপড়ের দোকান ও ভিবো মোবাইল ফোনের দোকান।
এ ছাড়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রিফাত ফেরদৌসের নেতৃত্বে পরিচালিত মোবাইল কোর্ট কর্তৃক রামপুরা এলাকায় ক্রিসেন্ট সুপার শপকে ১০ হাজার ও স্প্যান জুতার দোকানকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। সাইনবোর্ড বাংলায় না লেখায় রামপুরায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পার্শিয়া সুলতানা ৫টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এর মধ্যে ট্রান্সকম ইলেক্ট্রনিক্স, নাদিয়া ফার্নিচার ও ব্রাদার্স ফার্নিচারের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।
এ জাতীয় অভিযান প্রতি বছরই ভাষার মাস এলেই করতে দেখা যায়। কিন্তু উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী দেশের সব প্রতিষ্ঠানের নামফলক বা সাইনবোর্ড বাংলায় লেখা বাধ্যতামূলক।  এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক মানবজমিনকে বলেন, আমরা ডিএনসিসি’র পক্ষ থেকে সারা বছরই কোনো কোনো অনিয়মের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করি। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা এ অভিযান পরিচালনা করেন। সাইনবোর্ড বাংলায় লেখা নিশ্চিতকরণের ক্ষেত্রে শুধু ফেব্রুয়ারি মাসে অভিযান পরিচালনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ভাষার মাসে একটু গুরুত্ব বেশি থাকে- তাই এ জাতীয় অভিযান পরিচালনা করা হয়। তাছাড়া সারা বছরই আইনি ব্যবস্থা নিয়ে থাকে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর