× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৬ মার্চ ২০২১, শনিবার
ডিভোর্স ছাড়াই বিয়ে

তামিমার সাবেক স্বামীর পাশে ‘এইড ফর মেন ফাউন্ডেশন’

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক
(১ সপ্তাহ আগে) ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২১, সোমবার, ১:১৮ অপরাহ্ন

ডিভোর্স না দিয়েই ক্রিকেটার নাসির হোসেনকে বিয়ে করায় তামিমা তাম্মির সাবেক স্বামী রাকিব হাসানের পাশে দাঁড়িয়েছে ‘এইড ফর মেন ফাউন্ডেশন’ নামের একটি সংগঠন। পুরুষ অধিকার নিয়ে কাজ করা  সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ ইতোমধ্যে রাকিবের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। তাকে আইনগত সহায়তা দেওয়ার পাশাপাশি যেকোনো যৌক্তিক সহায়তায় পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছে সংগঠনটি। এইড ফর মেন ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম নাদিম গণমাধ্যমকে বলেন, রকিব হাসানের স্ত্রী তামিমা তাম্মী তার স্বামীকে ডিভোর্স না দিয়েই ক্রিকেটার নাসিরকে বিয়ে করেছেন। যা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এ ইস্যুতে নাসির ও তামিমা প্রভাবশালী হওয়ায় রাকিবকে বিভিন্ন রকমের হুমকি ধমকি দিচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে আমরা রাকিব হাসানের পাশেই আছি।
তিনি আরও বলেন, রোববার সন্ধ্যায় আমরা সংগঠনের পক্ষ থেকে ভিক্টিম রাকিব হাসানের সঙ্গে দেখা করি এবং তার পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছি। গত রোববার ভ্যালেন্টাইনস ডেতে কেবিন ক্রু তামিমা তাম্মিকে বিয়ে করেন নাসির।
কিন্তু এক সপ্তাহ পূর্ণ না হতেই জানা যায় নাসিরপত্নীর আগে আরেকটি বিয়ে হয়েছিল। ৮ বছর বয়সী মেয়ে স্বামী রাকিব হাসানকে ফেলে নাসিরকে জীবনসঙ্গী করেন তাম্মি।  রাকিবের দাবি, তামিমা তাকে ডিভোর্স না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেছেন।  

এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার রাতে উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি জিডি করেন রাকিব। উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি শাহ মো. আক্তারুজ্জামান ইলিয়াস জিডির বিষয়টি এরই মধ্যে গণমাধ্যমকে নিশ্চত করেছেন।

জিডি সূত্রে জানা গেছে, ২০১১ সালে তামিমা তাম্মিকে বিয়ে করেন রাকিব। দাম্পত্য জীবনে তাদের একটি মেয়ে রয়েছে। এর মধ্যেই তামিমা অন্য এক ছেলের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ায়। সেখানে ছয় মাস সংসার করার পর ফিরে আসে। পরে রাকিবের সঙ্গে ক্ষমা চেয়ে পার পায়। কিন্তু গত ১৪ ফেব্রুয়ারি নতুন করে ক্রিকেটার নাসিরের সঙ্গে ছবি ভাইরাল হলে রাকিব জানতে পারেন, তামিমা আবার বিয়ে করেছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
নাম দিয়া কাম কি?
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, সোমবার, ৪:৫৮

*** এইটা পাবলিক প্রপার্টী, ১১ বছর ব্যক্তি মালিকানায় রেখে রাকিব সাহেব অন্যায় করেছেন। মাঝখানে ৬ মাস বাদ। সুতরাং রাকিব সাহেবের শাস্তি হওয়া উচিত।

Abinash Sutrahdar
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, মঙ্গলবার, ২:০৭

দুই বন্ধুর দুই সন্তান । এক বন্ধুর সন্তান লেখাপড়ায় খুবই ভাল রেজাল্ট করে পত্রিকার শিরোনাম হয়েছেন। অন্য বন্ধুর বাবা তার সন্তানের জন্য খুব আক্ষেপ করে, কারণ সে লেখাপড়ায় খুব খারাপ রেজাল্ট করেছে। তার বাবা খুব রাগ করে সন্তানকে বলল, দেখ আমার বন্ধুর সন্তান এতই ভাল রেজাল্ট করেছে যে, পত্রিকার তার নাম ছাপানো হয়েছে। তখন তার সন্তানের মনে জিদ ধরল যেভাবেই হোক আমাকে পত্রিকার শিরোনাম হতে হবে। তাই সে চিন্তা ভাবনা করে দেখল কোন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে যদি হানা দেই, তাহলে সহজেই আমি পত্রিকার শিরোনাম হতে পারবো। তাই সিন্ধান্ত নিল ব্যাংক ডাকাতি করবে। যেমন চিন্তা, তেমন কাজ করল। পুলিশের তদন্তে সে ধরা পড়ল এবং তার ছবিসহ পত্রিকায় বড় করে তা ছাপানো হলো। ডাকাত সন্তান খুব খুশি হলো। কারণ তার উদ্দেশ্য ছিল পত্রিকার শিরোনাম হওয়া। সমাজ তাকে ভাল বা খারাপ বলেছে, তা ভাবার বিষয় নয়। ঠিক তেমনি অখ্যাতি একজন মহিলা অতি সহজে সমাজে পরিচিত হওয়ার জন্য বাংলাদেশের অতি গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেট শিবিরে হানা দিল এবং পত্রিকার পাতায় ছবিসহ ছাপা হলো, তাতেই সে খুশি। নাসিরে সাথে বিয়ের আগে তার পরিচিতি ছিল কেবলমাত্র, তার পূর্বের কাছে এবং পরিবারে কাছে। আর এখন ঐ মহিলার নাম সবাই জানে এবং তাকে চিনেছে যে, তিনি একজন বৈমানিক (কেবিন ক্রু)। ধন্যবাদ আপনাকে। সমাজ যাই বলুক, আপনার ছবিসহ পত্রিকায় ছাপা হয়েছে, এই বলে আপনার বাবাকে বলেন, যে তোমার মেয়েকে আজ সমাজের সবাই চিনে। আশা করি তোমার ছবিসহ ছাপানোর ব্যবস্থা করবো।

Md.Khairul Anam
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, সোমবার, ৪:৪৯

আপনি আচরিয়া(আচরণ করে) পরকে শেখাও---এ প্রবাদের কর্মানুযায়ী আশা করি জনাব শামসুল ইসলাম ওনার পরিবার থেকেই একজন নারীর বহু,কমপক্ষে দুজন স্বামীর ব্যবস্থাটি এদেশে বাস্তবায়ন করে এ মহতি (!!!)উদ্যোগের মহারথি হিসেবে অনেকগুলো পুরস্কার ভাগিয়ে নেবেন।জয় হোক বহুবিবাহের!!!????

জিলানী
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, সোমবার, ৩:২৭

যদি সব সত্য হয়, তবে নিঃসন্দেহে অপরিপক্ষ কাজ কিভাবে ঘটল!

Md.Khairul Anam
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, সোমবার, ৩:২০

জনাব শামসুল ইসলাম, আপনার পরিবারে একাধিক স্বামীর বিধানটি কার্যকর হলে আপনি অবশ্যই আনন্দিত হবেন, তাই নয় কি???

Aftab Chowdhury
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, সোমবার, ২:৫৭

samsulislam এর মা বোন মেয়ে আর বৌ কে দিয়েই সে তার দাবিকৃত অপকর্মের প্রচলন শুরু করুক ।

samsulislam
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, সোমবার, ১:৪২

পুরুষ যদি অনেক বিয়ে করতে পারে,তাহলে নারীর স্বামী কয়েক জন থাকলে কি সমস্যা।দুই স্বামী অসুবিধা কি?

Dr s m alinoor islam
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, সোমবার, ১:৩১

Please help all men like this

Mahmud
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, সোমবার, ১:১২

Nasir and Tamima both should face the course of law if she has married without divorcing her husband and Nasir marrying her knowingly.A serious message should be given to everyone who have similar plans in mind.

অন্যান্য খবর