× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২২ এপ্রিল ২০২১, বৃহস্পতিবার

পাপুলের এমপি পদ শূন্য ঘোষণা

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, মঙ্গলবার

মানব ও অর্থপাচারের দায়ে কুয়েতের আদালতের রায়ে দণ্ডিত লক্ষ্মীপুর-২ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের এমপি পদ বাতিলের সিদ্ধান্ত দিয়েছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। পরে তার এমপি পদ বাতিল নিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। বাংলাদেশের ইতিহাসে কোনো সংসদ সদস্যের বিদেশে আটক ও ফৌজদারি অপরাধে দণ্ডিত হওয়ার পর পদ হারানোর ঘটনা এটিই প্রথম। এ প্রসঙ্গে স্পিকার গতকাল মানবজমিনকে বলেন, কুয়েত থেকে পাঠানো রায়ের কপি পর্যালোচনা করে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান তার এমপি পদ শূন্য ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করেন। এতে উল্লেখ করা হয়েছে- কুয়েতের ফৌজদারি আদালতে গত ২৮শে জানুয়ারি ঘোষিত রায়ে নৈতিক স্খলনজনিত ফৌজদারি অপরাধে ৪ (চার) বছর সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত হওয়ায় লক্ষ্মীপুর-২ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য মোহাম্মদ শহিদ ইসলাম বাংলাদেশের সংবিধানের ৬৬ (২) (ঘ) অনুচ্ছেদের বিধান অনুযায়ী সংসদ সদস্য থাকার যোগ্য নন। সে কারণে সংবিধানের ৬৭ (১) (ঘ) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী রায় ঘোষণার তারিখ ২৮শে জানুয়ারি থেকে তার আসন (২৭৫ লক্ষ্মীপুর-২) শূন্য হয়েছে। বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের কার্যপ্রণালী-বিধির ১৭৮ (৪) বিধি অনুযায়ী ২৭৫ লক্ষ্মীপুর-২ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্যের আসন শূন্য সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করা হলো।
সংসদ সচিবালয় আসন শূন্য ঘোষণার গেজেট নির্বাচন কমিশনেও পাঠিয়েছে। শূন্য আসনে নির্বাচনের বিধান অনুযায়ী, ২৮শে জানুয়ারি থেকে পরবর্তী নব্বই দিনের মধ্যে লক্ষ্মীপুর-২ আসনে ভোটগ্রহণ করতে হবে। আরবি ও ইংরেজিতে লেখা ৬১ পৃষ্ঠার রায়ের কপি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের স্পিকারের দপ্তরে ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠায়। সংবিধান, কার্যপ্রণালী বিধি ও আইন অনুযায়ী এখন তার আর সংসদ সদস্য পদ নেই। অর্থ ও মানব পাচারের মামলায় গত ২৮শে জানুয়ারি পাপুলকে চার বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয় কুয়েতের আদালত। পাশাপাশি তাকে ১৯ লাখ কুয়েতি রিয়াল বা ৫৩ কোটি টাকা জরিমানাও করা হয়। গত বছরের ৬ই জুন রাতে কুয়েতের বাসা থেকে আটক করা হয় পাপুলকে। আটকের সাড়ে সাত মাস আর বিচারপ্রক্রিয়া শুরুর সাড়ে তিন মাসের মাথায় দণ্ডিত হন তিনি। কোনো সংসদ সদস্যের সাজা হলে এমপি পদের যোগ্যতা নিয়ে আইনি ব্যাখা জানতে চাইলে জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার এডভোকেট মো. ফজলে রাব্বী মিয়া মানবজমিনকে বলেন, “একজন সংসদ সদস্য যদি কোনো মামলায় দুই বছর বা তদূর্ধ্ব সময় সাজাপ্রাপ্ত হন এবং সেই সাজা যদি নৈতিকস্খল হয়। আর সেই বিষয়টা সরকার বা কোনো কর্তৃপক্ষ সংসদকে যদি অবহিত করেন যে আপনার ওই আসনের অমুক এমপি এই মামলায় এই ধারায় এতো বছরের কারাদণ্ড হয়েছে এবং সেটাকে আমরা নৈতিকস্খল বলে বিবেচনা করি তখন সংসদ সেই বিষয়ে চিন্তাভাবনা করে কাগজপত্র দেখে তাকে তখন ‘ডিজমেম্বর’ (সংসদ সদস্য পদ থেকে বহিষ্কার) করতে পারে। পাপুলের ক্ষেত্রে এখন সেই ঘটনা ঘটেছে। এর আগে পাপুল সম্পর্কে সংসদে প্রশ্ন ওঠায় ২০২০ সালের ৮ই জুলাই সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী সংসদে বলেছিলেন, তিনি কিন্তু স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য। তিনি কিন্তু নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য নমিনেশন চেয়েছিলেন আমি দেইনি। তিনি স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য। নির্বাচনে ওই সিট জাতীয় পার্টিকে দিয়েছিলাম। জাতীয় পার্টির নোমান নমিনেশন পেয়েছিলেন তিনি নির্বাচন করেননি ওই লোক জিতে আসেন। তিনি (পাপুল) কুয়েতের নাগরিক কিনা, সেটা কিনু্ত কুয়েতের সাথে কথা বলছি, দেখবে। আর যদি এটা হয় তাহলে তার ওই সিট হয়তো খালি করে দিতে হবে। যেটা আইনে আছে সেটাই হবে। প্রসঙ্গত, গত মানবপাচার ও অর্থপাচারে জড়িত থাকার অভিযোগে গত ৬ই জুন কুয়েত ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিনপার্টমেন্ট সিআইডি এমপি পাপুলকে আটক করে। তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রসঙ্গে কুয়েতের কূটনৈতিক সূত্রে জানা গেছে, কাজী শহিদ ইসলামের বিরুদ্ধে মানবপাচার, অতিরিক্ত ভিসা নবায়ন ফি আদায়, কুয়েতের সরকারি কর্মকর্তাদের ঘুষ দেওয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগ তদন্ত করছে কুয়েত ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট- সিআইডি। তার বিরুদ্ধে ১১ জন বাংলাদেশি সাক্ষ্যও দিয়েছেন। এছাড়া পাপুলের বেশ কয়েকটি ব্যাংকের চেকবই জব্দ করেছে সিআইডি। একই সঙ্গে কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা তার বিরুদ্ধে মামলা করেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর