× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার

যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে ফের ভারতের বৃহত্তম বাণিজ্য সহযোগী চীন

অনলাইন

বিশেষ সংবাদদাতা
(১ মাস আগে) ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২১, মঙ্গলবার, ১০:৪০ অপরাহ্ন

সীমান্ত সংঘাতের জেরে চীনের সাথে ভারতের কূটনৈতিক সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছিল ২০২০ সালেই। ভারতজুড়ে ডাক উঠেছিল চীনা পণ্য বয়কটের। সরকারিভাবে নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছিল বহু চীনা অ্যাপ। চীনা পণ্য আমদানিতেও কোপ দেওয়ার বার্তা আসছিল ভারত সরকারের তরফে। এতকিছুর পরও ২০২০ সালেই যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে ফের ভারতের বৃহত্তম বাণিজ্য সহযোগী দেশ হিসেবে উঠে এলো চীন! কেন্দ্রীয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে অর্থনৈতিক সংস্থা ব্লুমবার্গ।  আর তাতেই উঠে এসেছে এই বিস্ময়কর তথ্য।

ব্লুমবার্গের রিপোর্টে বলা হয়- করোনাভাইরাসের প্রকোপে উদ্ভুত অতিমারি এবং অর্থনৈতিক সঙ্কটের মধ্যেও চীনের সঙ্গে প্রায় ৭ হাজার ৭৭০ কোটি ডলারের বাণিজ্যিক লেনদেন হয়েছে ভারতের, ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় ৫ লক্ষ ৬৩ হাজার টাকা। এর মধ্যে চীন থেকে পণ্যই কেনা হয়েছে ৫ হাজার ৮৭০ কোটি ডলারের, ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় ৪ লক্ষ ২৫ হাজার ৩৭৩ কোটি টাকা।

চীনের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্র এবং সংযুক্ত আমিরাতের সঙ্গেও ভারতের বাণিজ্যিক সম্পর্ক যথেষ্ট মজবুত। কিন্তু চীনের উপর ভারতের নির্ভরশীলতা তুলনামূলকভাবে বেশি। ২০১৭ এবং ২০১৮ সালেও চীনই ছিল ভারতের বৃহত্তম বাণিজ্য সহযোগী দেশ।
২০১৯-এ তাদের টপকে গিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু ২০২০ সালে ফের ভারতের শীর্ষ বাণিজ্য সহযোগী দেশ হিসেবে উঠে এসেছে চীন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Brojo
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, মঙ্গলবার, ১০:০৭

India need to learn from chaina to lift up its poor people. Of course good to be close economic relationships.

অন্যান্য খবর